১ লাখ টাকার নিচে ৫টি মোটরসাইকেল - ওয়াসিফ আনোয়ার

Published On 06-Jul-2021 12:37pm , By Raihan Opu Bangla

বাংলাদেশে মহামারী ছড়িয়ে পরার কারণে গণ পরিবহন ব্যবহার করা অনেক বেশি ঝুঁকিপূর্ন, তাছাড়া অনেক ব্যয়বহুল। তাই এই সময়ে একটি মোটরসাইকেল আপনাকে অনেক বেশি সহায়তা করবে। তাই আজ আমি আপনাদের বাংলাদেশের মার্কেটে পাওয়া যায় এমন ৫টি মোটরসাইকেল এর কথা বলব, যার দাম ১ লাখ টাকার নিচে। তো চলুন জেনে নেয়া যাক ১ লাখ টাকার নিচে ৫টি মোটরসাইকেল এর নাম।top 5 entry level motorcycle ১ লাখ টাকার নিচে ৫টি মোটরসাইকেল  

তবে এর আগে আমরা আপনাদের কিছু বলে নিতে চাই। সেটি হচ্ছে এই পাঁচটি মোটরসাইকেল কয়েকটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে নির্ধারণ করা হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে -

  • ব্র্যান্ড ও মোটরসাইকেল এর রিল্যায়েবিলিটি
  • বাংলাদেশের বড় শহর গুলোতে বা বলা যায় মোটামুটি সব জায়গাতে এর সার্ভিস ও পার্টস পাওয়া যায়
  • মাইলেজ
  • নতুন বাইকার বা প্রথম বাইক হিসেবে ক্রয় করা


১ লাখ টাকার নিচে ৫টি মোটরসাইকেল

  • Runner AD80S Deluxe – ৭০,০০০/- টাকা

বাংলাদেশে রানারের অনেক সেলস সেন্টার রয়েছে এবং সেই সাথে ৮০সিসি সেগমেন্টে সবচেয়ে বেশি সেল হওয়া অন্যতম মোটরসাইকেলও এটি। আপনি এই বাইকটি উপর ভরসা করতে পারেন। বাইকটি ছোট, সহজেই রাইড করা যায় এবং মেইন্টেনেন্সও করাও সহজ।
 
runner ad80s deluxe price
 

বর্তমানে আপনি ৯,০০০/- টাকা কমে এই বাইকটি অন্য ভার্সন বা মুল ভার্সন ক্রয় করতে পারবেন। তবে Runner AD80S Deluxe বাইকটি দেখতে যেমন স্মার্ট, ঠিক তেমনই এই ভার্সনটি মুল ভার্সনের চেয়ে কিছু দিক থেকে অনেক বেশি ভাল।

  • Bajaj CT100 ES – ৯৫,৫০০/- টাকা


মোটরসাইকেল জগতে আপনি বাজাজ এর নাম এড়িয়ে যেতে পারবেন না। বাংলাদেশে সেলস এর দিক থেকে সবচেয়ে বেশি সেল হওয়া বাইকের মধ্যে বাজাজের মোটরসাইকেল অন্যতম। আর Bajaj CT100 ES তার সেগমেন্টে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া বাইকের মধ্যে অন্যতম।

bajaj ct 100 es alloy price in bangladesh
   

যদিও আপনি এই বাইকটি শহরের দিকে বেশি দেখবেন না। বাইকটি গ্রাম্য এলাকায় সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়ে থাকে । এর অনেক গুলো কারনের মধ্যে কিছু হচ্ছে বাইকটির প্রশস্ত সিট, সাসপেনশন, রিলায়েবল ইঞ্জিন এবং পুরো বাংলাদেশ জুড়ে বাজাজ এর ৪০০ বেশি সার্ভিস পয়েন্ট রয়েছে, এ কারণেই এর জনপ্রিয়তা বেড়েছে।

  • Hero HF Deluxe – ৯০,৯৯০/- টাকা


হ্যা, এখানে আপনি তর্ক করতেই পারেন, কেন হিরোর সবচেয়ে বেশি বিক্রি হওয়া বাইকের চেয়ে Hero HF Deluxe কেন নেয়া হয়েছে। এখানে দুটি কারণ রয়েছে একটি হচ্ছে মেকানিক্যাল ও টেঁকনিক্যাল ভাবে বাইক দুটি একই, এবং অপরটি হচ্ছে আমরা মনে হয় Splendor+ এর চেয়ে HF Deluxe দেখতে বেশ সুন্দর ও স্মার্ট। hero hf deluxe price in bangladesh 

আমি সব সময় হিরোর বাইক পছন্দ করে থাকি। আমার মনে হয় তারা আন্ডাররেটেড। আমি হিরোর যত গুলো বাইক টেস্ট রাইড করেছি হতে পারে সেটি  Achiever, Ignitor অথবা Passion X Pro আমার বলতে কোন বাধা নেই যে তারা সাসপেনশন এর দিক থেকে অনেকের চেয়ে এগিয়ে আছে। 

  • TVS Radeon – ৯৯,৯০০/- টাকা


যদি আপনি আমার মতো হন, আর আমার মতই আপনার টাকার ভ্যালু দিতে একটি বাইক ক্রয় করতে চান তবে এই বাইকটি ক্রয় করতে পারেন। ভ্যালু ফর মানি বলতে যা বোঝায় তা বাইকটিতে রয়েছে। টিভিএস এর কমিউটিং সেগমেন্টে অনেক বাইক রয়েছে TVS Radeon এর মতো এক্সাইটিং কোন বাইক নেই।

Click To See TVS Radeon Test Ride Review

https://www.youtube.com/watch?v=RjYx6laCP8w


আমরা এই বাইকটি টেস্ট রাইড করেছি হ্যান্ডেলিং, ব্রেকিং, বিল্ড কোয়ালিটি এবং বাইকটির ইঞ্জিনের সাউন্ড আপনার কাছে অনেক ভাল লাগবে। বাইকটিতে সিবিএস ব্রেকিং দেয়া হয়েছে, তবে আমি আশা করব যে টিভিএস ভবিষ্যতে ডিস্ক ব্রেক অপশন হিসেবে নিয়ে আসবে।

  • Honda Dream 110 – ৮৯,৯০০/- টাকা


হোন্ডার ১১০ সিসি সেগমেন্টে Honda Dream Neo কমিউটিং ও এন্ট্রি লেভেলের বাইক রয়েছে। তবে হোন্ডার মার্কেট যাচাই করে এবং সকল তথ্য উপাত্তের উপর ভিত্তি করে নতুন ভাবে লঞ্চ করেছে Honda Dream 110 এই নামে। Dream Neo এর চেয়ে এই নতুন বাইকটির সিট আরামদায়ক, সিট হাইট অনেক কম এবং মাইলেজও অনেক ভাল প্রদান করবে। 


honda dream 110 


এই ৫টি মোটরসাইকেল হচ্ছে সেই সকল মোটরসাইকেল যে মোটরসাইকেল গুলো ১ লাখ টাকার নিচে এবং সব দিক থেকে ভ্যাল ফর মানি। এই মহামারীর সময়ে ঘরে থাকুন এবং সেফ থাকুন, আর বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক ও সেফটি নিয়ে বের হবেন। এই ৫টি মোটরসাইকেল বর্তমানে বাংলাদেশের মার্কেটে পাওয়া যাচ্ছে।