ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে কি করতে হবে । BRTA । জানুন বিস্তারিত

Published On 27-Aug-2020 10:45am , By Raihan Opu Bangla

ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া বর্তমান সময়ে বাইক চালানো সম্ভব না। ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে কি করতে হবে সেই সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না। চলার পথে অনেক সময় আমাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে যায়। ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে চিন্তার কোন কারন নেই, কারন আপনি ড্রাইভিং লাইসেন্সের ডুপ্লিকেট কপি তুলতে পারবেন। চলুন এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেয়া যাক।


ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে কি করতে হবে

 ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে কি করতে হবে

ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে কি করতে হবে?

ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে সবার প্রথমে আপনাকে যে কাজগুলো করতে হবেঃ ১- সংশ্লিষ্ট থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে হবে। ২- আপনার লাইসেন্সের বিরুদ্ধে কোনো মামলা আছে কিনা সে জন্য ট্রাফিক ক্লিয়ারেন্স নিতে হবে। ৩- আপনি যে এলাকা থেকে লাইসেন্সটি করেছিলেন, ডুপ্লিকেট কপির জন্য সে এলাকায় আবেদন জমা দিতে হবে।

ড্রাইভিং লাইসেন্স

ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে আবেদন করার নিয়মঃ

১- নির্ধারিত ফরমে আবেদন। ২- জিডি কপি ও ট্রাফিক ক্লিয়ারেন্স। ৩- বিআরটিএ’র নির্ধারিত ফি’র ব্যাংক জমাদানের রসিদ। ৪- সদ্য তোলা ১ কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে স্মার্টকার্ড প্রিন্টিংয়ের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে গ্রাহককে এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হয়।

কত টাকা ফি জমা দিতে হবে?

৮৭৫ টাকা নির্ধারিত ব্যাংকে জমা দিতে হবে। ( এই ফি পরিবর্তন হতে পারে )

আরও পড়ুন >>অনলাইনে ট্যাক্স টোকেন রিনিউ করার পদ্ধতি। বি আর টি এ । জানুন বিস্তারিত

ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে অথবা বাইকের কাগজ হারিয়ে গেলে আমরা অনেকেই খুব চিন্তায় পরে যায়। কিন্তু চিন্তার কিছু নেই, কারন বিকল্প উপায় আছে। তবে এই কাজগুলো করতে আপনার সময় এবং শ্রম সব কিছুই নষ্ট হচ্ছে। তাই সব সময় চেষ্টা করুন নিজের বাইকের কাগজ ড্রাইভিং লাইসেন্স সহ প্রয়োজনীয় সব কাগজ সব সময় নিরাপদ স্থানে রাখতে। আপনি যদি একটু সতর্ক থাকেন তাহলে আপনার বাইকের কাগজ নিরাপদ রাখা সম্ভব। আমাদের মাঝে অনেকেই আছে যারা থানায় যাওয়ার কথা শুনলে চিন্তায় পরে যান, কিন্তু এটা কোন ঝামেলার কাজ না। বাইকের কাগজ অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স হারিয়ে গেলে আপনি খুব সহজেই থানায় গিয়ে জিডি করিয়ে নিতে পারবেন। সব সময় ভালো মানের হেলমেট ব্যবহার করুন এবং নিয়ন্ত্রিত গতিতে বাইক রাইড করুন। ধন্যবাদ


তথ্যসূত্রঃ যুগান্তর