পাটুরিয়া এবং মাওয়া এর বিকল্প সড়ক যেটি বাইকারদের চেনা উচিৎ

Published On 03-Aug-2022 02:13pm , By Ashik Mahmud Bangla

বর্তমান সময়ে মহাসড়কে বাইক চালানো নিয়ে অনেক আলোচনা সমালোচনা হচ্ছে , এই সময়টাতে আমাদের বিকল্প সড়ক চেনা উচিৎ। পাটুরিয়া এবং মাওয়া এর বিকল্প সড়ক আছে যেটা আমরা অনেকেই জানি আবার অনেকেই এই সড়কটা সম্পর্কে জানি না। আমরা বাইকররা নিজের বাইকটাকে অনেক বেশি ভালোবাসি আর দীর্ঘদিন বাইক ব্যবহার করার ফলে অন্য যানবাহনে নিজেকে মানিয়ে নেয়া সহজ কাজ না। বাইক এর মতোন স্বাধীন বাহন আমাদের দেশে আর নেই। আপনি যদি অল্প সময়ে , অল্প খরচে , ঝামেলামুক্ত , স্বাধীনভাবে চলাচল করতে চান সেক্ষেত্রে একটা মোটরসাইকেলের বিকল্প আর কিছু হতে পারে না।

আমরা যারা দক্ষিণবঙ্গ এর বাইকার আছি , যাদের বাড়ি ফরিদপুর জেলা , গোপালগঞ্জ জেলা, মাদারীপুর জেলা, রাজবাড়ী জেলা, শরীয়তপুর জেলা , বাগেরহাট জেলা , চুয়াডাঙ্গা জেলা , যশোর জেলা , ঝিনাইদহ জেলা , খুলনা জেলা , কুষ্টিয়া জেলা,  মাগুরা জেলা , মেহেরপুর জেলা, নড়াইল জেলা , সাতক্ষীরা জেলা , বরগুনা জেলা , বরিশাল জেলা ,  ভোলা জেলা , ঝালকাঠি জেলা , পটুয়াখালী জেলা , পিরোজপুর জেলা  তাদের জন্য ঢাকা থেকে যাওয়ার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হচ্ছে পদ্মা পাড়ি দিয়ে যাওয়া।

তাই  পাটুরিয়া এবং মাওয়া এর বিকল্প সড়ক আমাদের সবার জানা উচিৎ। আপনি যদি একাধিক রাস্তা চিনে থাকেন তাহলে আপনি যে কোন একটা রাস্তা দিয়ে আপনার প্রিয় বাইকটি নিয়ে আপনার বাড়ি পৌঁছে যেতে পারবেন। আজ আমি এই বিকল্প সড়ক দিয়ে যাওয়ার উপায় , রাস্তার খরচ নিয়ে আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

পাটুরিয়া এবং মাওয়া এর বিকল্প সড়কঃ

আমি ফরিদপুর জেলার মানুষ , আর এই সড়কটি দিয়ে আমি বাইক নিয়ে একাধিক বার যাতায়াত করেছি। এই রাস্তাটি আমার কাছে সহজ এবং ঝামেলামুক্ত মনে হয় । এই সড়কটি ব্যবহার করতে সবার আগে আপনাকে ঢাকার মোহাম্মদপুর আসতে হবে। মোহাম্মদপুর বেড়িবাঁধ চার রাস্তার মোড থেকে আপনি এগিয়ে যাবেন বসিলা ব্রিজের উদ্দেশ্যে। বছিলা ব্রিজ পার হয়ে Moinot Ghaat ( Mini Cox's Bazar ) যাওয়ার অনেকগুলো রাস্তা আছে।

বছিলা পার হওয়ার পর  Ghatarchar Bus Stand হয়ে আপনি সোজা চলে আসবেন Madhu City Food Court - মধু সিটি ফুড কোর্ট । এখান থেকে Ati Bazar - Kalatiya Rd রাস্তা দিয়ে আপনি এগিয়ে যাবেন চন্ডীপুর সড়ক ধরে। Kaykobad poet Bridge হয়ে বেনুখালি বাস স্টেশন হয়ে নবাবগঞ্জ দোহার সড়ক দিয়ে খুব সহজে চলে যাবেন কার্তিকপুর বাজার। এইখান থেকেই আপনি Moinot Ghaat ( Mini Cox's Bazar ) পৌঁছে যাবেন। সেখান থেকে ট্রলারে করে বাইক পার করে আপনি খুব সহজেই চলে যেতে পারবেন ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলায়। চরভদ্রাসন উপজেলায় যাওয়ার পর আপনি ওখান থেকে খুব সহজেই সদরপুর উপজেলা চলে যেতে পারবেন।

অথবা চরভদ্রাসন থেকে গ্রামের সবুজ ঘেরা রাস্তা দিয়ে বাইক রাইড করতে করতে আপনি চলে আসতে পারেন মুন্সিবাজার। মুন্সিবাজার থেকে আপনি বরিশাল এর মহাসড়ক ধরে চলে যেতে পারেন আপনার গন্তব্যে। আবার যারা ঝিনাইদহ এর দিকে যাবেন তারা মুন্সিবাজার থেকে ফরিদপুর বাইপাস সড়ক দিয়ে সহজেই রাজবাড়ি রাস্তার মোড় চলে আসতে পারেন। আমাদের দেশে রাস্তার শেষ নেই , তবে আমি সহজ রাস্তাটা আপনাদের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করলাম। যারা প্রথমবার যাবেন তারা Google Map এর সাহায্য নিতে পারেন।

সাবধানতাঃ

১- এই সড়কে প্রচুর সিএনজি চলে , আর আমরা বাইকাররা সিএনজি সম্পর্কে খুব ভালোভাবে জানি। তাই নতুন করে বলার কিছুই নেই , অবশ্যই সাবধানে রাইড করতে হবে। সকাল সকাল গেলে অনেকটা শান্তিতে যেতে পারবেন।

২- রাস্তাটা সুন্দর হলেও আঁকাবাঁকা , তাই প্রতিটা মোড়ে অবশ্যই হর্ন ব্যবহার করবেন। বাইকের গতি সব সময় নিয়ন্ত্রনের মধ্যে রাখবেন।

৩- রাতে বেলা এই রাস্তা দিয়ে যাওয়ার দরকার নেই । কারন রাস্তাটা ফাঁকা থাকে , আর রাতে গিয়ে আপনি ট্রলারে বাইক পার করতে পারবেন না।

৪- কিছু কিছু জায়গায় রাস্তা সরু , তাই সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

৫- ট্রলারে বাইক উঠানোর সময় নিজে পাশে থাকার চেষ্টা করুন। যদি সম্ভব হয় আপনি নিজেই চালিয়ে উঠে যান।

যারা এই সড়ক দিয়ে প্রথমাবার যাবেন তাদের মনে এই সড়ক নিয়ে অনেক প্রশ্ন থাকতে পারে। একজন বাইকার হিসেবে আমি আপনাদের কিছু প্রশ্নের উত্তর দেয়ার চেষ্টা করছি।

FAQ:

১- ঢাকা থেকে মৈনট ঘাটের দূরত্ব কত ?

উত্তরঃ ঢাকা থেকে মৈনট ঘাটের দূরত্ব 59.4 km । ( Zinzira - Keraniganj - Nawabganj - Dohar - Srinagar Rd/R820 )


২- মৈনট ঘাট কিভাবে যাব ?

উত্তরঃ ঢাকা থেকে আপনি Zinzira - Keraniganj - Nawabganj - Dohar রাস্তা দিয়ে খুব সহজে এখানে যেতে পারবেন।


৩- মৈনট ঘাট থেকে ফরিদপুর কিভাবে যাব ?

উত্তরঃ চরভদ্রাসন ঘাটে নেমে সেখান থেকে গজারিয়া বাজার , সাদিপুর বাজার হয়ে আপনি খুব সহজেই ফরিদপুর যেতে পারবেন।


৪- ট্রলারে বাইক পার করতে কত টাকা লাগে ?

উত্তরঃ ট্রলারে বাইক পার করতে ৩০০ টাকা নিয়েছিলো। তবে এটা সময় ভেদে কম বেশি হতে পারে।

সব সময় নিয়ন্ত্রিত গতিতে বাইক রাইড করবেন।

ধন্যবাদ।