ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেল টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার উপায়

This page was last updated on 29-Jun-2024 12:00pm , By Saleh Bangla

সাধারণত: দিনের প্রথমভাগে অর্থাৎ সকালে, আমাদের চারপাশের আবহাওয়া সচরাচর বেশ ঠান্ডা থাকে। এইসময়ে অথবা আরো ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেল চালানো অনেকের কাছেই বেশ উপভোগ্য একটি বিষয়। তবে দিনের শুরুতে অথবা ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেল চালানো শুরু করতে হলে কিছু বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরী। যেমন, এসময়ে মোটরসাইকেলের চাকা বা টায়ার যথাযথ আচরন করে না। এসময় মোটরসাইকেলের চাকা বা টায়ার একদম ঠান্ডা থাকায় তা পূর্নমাত্রায় পারর্ফমেন্স দিতে পারে না, বরং তা বেশ চ্যালেঞ্জিং আচরনই করে।

স্বাভাবিকভাবেই, ভোরবেলা বা ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেলের টায়ারের রাবারগুলি শক্ত ও অনমনীয় অবস্থায় থাকে, আর তাতে চাকার সঠিক ট্র্যাকশন এবং কন্ট্রোলিং ক্যারেক্টারিস্টিকস নিশ্চিত করা একটি চ্যালেঞ্জ হয়ে দাড়ায়। আর এই অবস্থ‍ার প্রেক্ষিতে মোটরসাইকেলের টায়ারগুলি থেকে সর্বোত্তম পারফরম্যান্স পেতে সেগুলির যথাযথ ওয়ার্ম-আপ করা প্রয়োজন হয়। তো সেইসূত্রেই আজ আমরা আলোচনা করবো ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেলের টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার উপায় নিয়ে। চলুন আমাদের আজকের আলোচনায়।

 

ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেল টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার উপায়

দিনের শুরুতে, বিশেষ করে ভোরে অথবা সাধারন ঠাণ্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেল টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার টেকনিক আয়ত্ব করা একজন মোটরসাইকেল রাইডারের নিরাপত্তা এবং আনন্দদায়ক রাইডিং এক্সপেরিয়েন্সের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই সময়গুলিতে নিম্ন তাপমাত্রায় সাধ‍ারনত মোটরসাইকেলের টায়ারের রাবার অত্যন্ত অনমনীয় বা শক্ত প্রকৃতির থাকে। যার ফলে টায়ারের ট্রাকশন ক্ষমতা কমে সারফেসের উপর চাকার গ্রিপ কমে যায়, এবং চাকার পিছলে যাবার প্রবনতা বেড়ে যায়, আর তার ফলে স্বাভাবিক মাত্রার ব্রেকও নিরাপদ ও ভালোভাবে প্রয়োগ করা যায় না।

এসময় চাকার রাবার কম নমনীয় ও কম প্রতিক্রিয়াশীল হওয়ায় মোটরসাইকেলের চাকা তার স্বাভাবিক ট্র্যাকশন ক্যারেক্টারিষ্টিকস হারায়, যা একজন রাইডারকে বেশ বিপজ্জনক পরিস্থিতির দিকে নিয়ে যেতে পারে। এক্ষেত্রে মোটরসাইকেলের সার্বিক স্থিতিশীলতা হ্রাস পায়, ব্রেকিং ডিসটেন্স বেড়ে যায়, পিচ্ছিল রাস্তাগুলিতে নিয়ন্ত্রণ হারানো সহ স্বাভাবিক কর্নারিং ক্ষমতাও নষ্ট হয়ে যায়। তো এই অবস্থায় অবশ্যই সঠিকভাবে টায়ার ওয়ার্ম-আপ করা জরুরী। আর এটি কিভাবে কার্যকরীভাবে করা যায় সে সম্পর্কে নিম্নে আমাদের টিপসগুলি দেয়া হলো।

 

মোটরসাইকেল টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার টেকনিক

>> দিনের শুরুতে, অথবা সকালে, বা ঠান্ডা আবহাওয়ায় মোটরসাইকেল রাইড শুরু করার আগে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্য নিজের মোটরসাইকেলটির একটি প্রি-রাইড ইনসপেকশন সবসময়ই প্রয়োজন। এটি সত্যিকার অর্থে খুবই কাজে দেয়। তাই এসময় আপনার মোটরসাইকেলটির টায়ার ও চাকাগুলি চেক করুন যাতে নিশ্চিত হতে পারেন যে, তাতে কোন চিড়, ক্র্যাকিং, লো-প্রেশার, বা অসম ক্ষয় প্রভৃতি নেই। ঠান্ডা আবহাওয়ায় এজাতীয় সমস্যাগুলি আরো বাড়তি ঝামেলা তৈরী করতে পারে। তাই টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার আগেই টায়ারের কন্ডিশন ভাল অবস্থায় আছে কিনা তা নিশ্চিত হোন।


>> দ্বিত্বীয়ত, রাইডিং শুরু করার আগে সঠিকভাবে আপনার মোটরসাইকেলের টায়ারের বাতাসের চাপ পরীক্ষা করুন। মোটরসাইকেলের টায়ার ম্যানুফ্যাকচারারের রেকমেন্ডেড অথবা আপনার মোটরসাইকেলের ওনার-ম্যানুয়েলে উল্লেখিত মাপে টায়ারগুলিতে বাতাসের চাপ রয়েছে কিনা্ নিশ্চিত হোন। প্রয়োজনে বাতাসের চাপ সমন্বয় করুন। আর সেইসাথে নিশ্চিত হোন যে টায়ারগুলির ক্ষয় TWI (Tread Wear Indicator) চিহ্নের ভেতরের নিরাপদ সীমা পর্যন্ত রয়েছে।


>> সমভাবে টায়ার ওয়ার্ম-আপের জন্য রাইডের শুরুতে স্বাভাবিকভাবে ও সমগতিতে রাইড করুন। রাইডের প্রাথমিক মুহুর্তগুলি বিশেষকরে প্রথম কয়েক কিলোমিটারের রাইড এখানে গুরুত্বপূর্ণ। এসময় ধীরে রাইডের গতি বাড়ান এবং একই স্পিডে রান করুন, আর আস্তে আস্তে ব্রেক করুন। মোটরসাইকেল চালানোর এই পর্যায়ে মাঝারি গতি বজায় রাখুন, সেইসাথে আকস্মিক থ্রোটল টুইস্ট করা ও হার্ড ব্রেকিং এড়িয়ে চলুন। এভাবে কিছুসময় রাইডের পর ধীরে ধীরে মোটরসাইকেলর গতি বাড়ান এবং সমন্বিতভাবে ব্রেক করুন। এতে টায়ারে ঘর্ষণ বাড়বে আর তা তাপ তৈরি করে টায়ার ওয়ার্ম-আপের সূচনা করবে।


>> মোটরসাইকেলের টায়ার ওয়ার্ম-আপ পিরিয়ডের সময় যতটা সম্ভব সোজা লাইনে মোটরসাইকেল চালিয়ে যান। সম্ভব হলে কিছুটা সময় একটানা সোজালাইনে মোটরসাইকেল ধরে রাখুন। এটি আপনার মোটরসাইকেলের  টায়ারের উপর সার্বিক ওজন সমানভাবে বিতরনে সহায়ক হবে। আর এর ফলে টায়ার ওয়ার্ম-আপ প্রক্রিয়াটি ত্বরান্বিত হবে। আর এই সময়টাতে একটি স্বাভাবিক মাঝারি গতি বজায় রাখুন এবং আচমকা বাঁক নেয়া ও ব্রেক করা থেকে বিরত থাকুন।


>> মোটরসাইকেলের টায়ার ওয়ার্ম-আপের শুরুতে সোজা লাইনে মোটরসাইকেল চালানোর সময়ে আপনার শরীরের ওজন সময়ে সময়ে একপাশ থেকে অন্যপাশে সামান্য সরানোর চেষ্টা করুন। এতে টায়ারের দুপাশে ওজনের পরিবর্তনের ফলে তা কিছুটা দ্রুত গরম হতে শুরু করবে এবং টায়ারগুলিকে আরো দ্রুত নমনীয় ও আরো গরম হতে সাহায্য করবে।


>> মোটরসাইকেলের টায়ার ওয়ার্ম-আপ প্রক্রিয়াটি শুরু হয়ে গেলে আপনি গতি বাড়াতে পারেন, আর সেইসাথে বাঁকগুলিতেও কিছুটা আগ্রাসী হতে পারেন। তবে টাইট-কর্নারগুলি ট্যাকল করার সময় লম্বা সুইপিং রান দিয়ে শুরু করতে ভুলবেন না। এভাবে ক্রমবর্ধমান পদ্ধতিতে আপনার মোটরসাইকেলের টায়ারের রাবারকে সমানভাবে ওয়ার্ম-আপ করে নিন এবং তা পূর্ণমাত্রার রোড-গ্রিপে নিয়ে আসুন। আর মোটরসাইকেলের টায়ার পর্যাপ্ত ফ্লেকজিবল হয়ে গেলে তবেই কেবল টাফ ব্রেকিং ও আগ্রাসী রাইডে অগ্রসর হতে পারেন।

 

তো বন্ধুরা, এই ছিলো দিনের শুরুতে ঠান্ডা আবহাওয়ায় ও শীতকালে মোটরসাইকেলের টায়ার ওয়ার্ম-আপ করার সাধারন কৌশল। মনে রাখবেন, এখানে ধৈর্য্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় যা কিনা আপনার সার্বিক নিরাপত্তার সাথে জড়িত। এক্ষেত্রে আপনার মোটরসাইকেলের টায়ারগুলি সঠিক অপারেটিং টেমপারেচারে পৌঁছাতে হয়তো কিছু সময় নিতে পারে, বিশেষ করে অত্যন্ত ঠান্ডা আবহাওয়ায়। কিন্তু আপনার মোটরসাইকেলের চাকার উপর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ পেতে ও রাইডিংয়ে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই প্রক্রিয়া অনুসরন জরুরী। সুতরাং ধৈর্য্য ধরে উপরে বর্ণিত কৌশলগুলি অনুসরণ করুন এবং নিরাপদে ঠান্ডা আবহাওয়ার মাসগুলিতে আনন্দদায়ক রাইডিং উপভোগ করুন, ধন্যবাদ।

Best Bikes

Honda CB Hornet 160R

Honda CB Hornet 160R

Price: 169800.00

Honda CB Hornet 160R ABS

Honda CB Hornet 160R ABS

Price: 255000.00

Honda CB Hornet 160R CBS

Honda CB Hornet 160R CBS

Price: 212000.00

View all Best Bikes

Latest Bikes

Honda SP160 (Single Disc)

Honda SP160 (Single Disc)

Price: 197000.00

Lifan Blues 150

Lifan Blues 150

Price: 0.00

Lifan KPV350

Lifan KPV350

Price: 0.00

View all Sports Bikes

Upcoming Bikes

Bajaj Freedom 125

Bajaj Freedom 125

Price: 0.00

Lifan K29

Lifan K29

Price: 0.00

455500

455500

Price: 0.00

View all Upcoming Bikes