Highest road of Bangladesh - বাংলাদেশের সর্বোচ্চতম সড়ক

Published On 27-Jun-2021 12:54pm , By Ashik Mahmud Bangla

এডভেঞ্চার প্রেমী বাইকারদের মনে একটা প্রশ্ন হয়তো প্রায় আসে, আর সেটা হচ্ছে "Highest road of Bangladesh" কোনটি ? বান্দরবানে পাহাড়ের ওপর দিয়ে নির্মিত থানচি-আলীকদম সড়কটি বাংলাদেশের সবচেয়ে উঁচু সড়ক। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় আড়াই হাজার ফুট উচ্চতায় নির্মিত আলীকদম-থানচি সড়ক। সাঙ্গু নদ ও মাতামুহুরী নদী উপত্যকা বিভাজনকারী চিম্বুক পাহাড়শ্রেণির ডিম পাহাড় এলাকার ওপর দিয়ে সড়কটি নির্মাণ করা হয়েছে। Highest road of Bangladesh ছোট-বড় অসংখ্য পাহাড় ভেদ করে ১২ ফুট চওড়া ও ৩৫ কিলোমিটার সড়কটি এঁকেবেঁকে চলে গেছে থানচি উপজেলা থেকে আলীকদম উপজেলায়। ২ হাজার ৫০০ ফুট উঁচুতে পাথুরে পাহাড়ের গায়ে আঁকাবাঁকা ধাপ কেটে ৩৫ কিলোমিটারের সড়কটি নির্মাণ করা হয়েছে। সড়কটি চালু হওয়ার পর থেকে আস্তে আস্তে এডভেঞ্চার প্রিয় বাইকারদের কাছে জায়গাটি বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠতে থাকে। পাহাড়ের আঁকাবাঁকা বাঁকগুলো বাইক রাইডের আনন্দকে অনেক বেশি বাড়িয়ে দেয়। থানচি আলীকদম সড়ক

Highest road of Bangladesh:

একটা সময় ছিলো যখন এখানকার উৎপাদিত কৃষিপণ্য পরিবহনের অভাবে নষ্ট হতো। ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হতেন এখানকার দরিদ্র কৃষকরা। এখন আর সে সমস্যা নেই , জুমে উৎপাদিত পণ্য অল্প সময়ে জেলা সদরে নেওয়া যায়। সড়কটি চালু হওয়ায় স্থানীয় শিশু-কিশোরদের শিক্ষার সুযোগ তৈরি হয়েছে। বর্তমানে প্রায় ১৫-২০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে শিশু-কিশোররা স্কুলে যাতায়াত করে। এখানকার নৈসর্গিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে দেশি-বিদেশি পর্যটকরা এখানে প্রায় ভিড় জমান। এতে এলাকার ব্যবসা-বাণিজ্যের প্রসার ঘটেছে। থানচি

আরও পড়ুন >> সিলেট জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ

এ সড়কের জিরো পয়েন্ট এলাকায় অবস্থিত ‘ডিমপাহাড়’। যা অনেক বাইকারদের কাছে এখন অন্যতম পছন্দের একটি স্থান। আবার এমন অনেক বাইকার আছেন যারা এখনো এখানে যান নি কিন্তু একটাবার হলেও এখানে যেতে চান। সড়কটি নির্মাণের ফলে বাংলাদেশ-মায়ানমার সীমান্তবর্তী কিছু এলাকার সঙ্গে সড়ক যোগাযোগও সহজ হয়েছে। ডিমপাহাড়

ডিমপাহাড়ঃ

ডিম পাহাড় বাংলাদেশের বান্দরবান জেলায় অবস্থিত একটি পাহাড়। এই পাহাড়ের মধ্যে দিয়ে সমুদ্র সমতল থেকে আড়াই হাজার ফুট উঁচুতে নির্মাণ করা হয়েছে বাংলাদেশের সবচেয়ে উঁচু সড়কপথ। আড়াই হাজার ফুট উঁচু এ পাহাড় চূড়ার আকৃতি দেখতে ডিমের মতো হওয়ায় স্থানীয়রা একে ডিম পাহাড় নামেই চেনে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নির্মাণ প্রকৌশল ব্যাটালিয়ন ২০০৬ সালে থানচি উপজেলা সদর থেকে আলীকদম উপজেলা সদর পর্যন্ত ৩৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়কটির নির্মাণ কাজ শুরু করে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় আড়াই হাজার ফুট উঁচুতে প্রাকৃতিক পরিবেশ বজায় রেখে ছোট বড় ৬০-৭০টি পাহাড়ের ধাপ কেটে সড়কটি নির্মাণ করতে এ দীর্ঘ সময় ব্যয় হয়। আলীকদম

dhaka to alikadam distance >> (385.7 km) via N1

যে সব সতর্কতা অবলম্বন করবেনঃ

বাইক নিয়ে যারা এই রাস্তায় ভ্রমণ করতে যাবেন তাদের অবশ্যই বেশ কিছু জিনিস মাথায় রেখে বাইক রাইড করতে হবে, কারন এখানে ছোট্ট একটি ভুল বড় ধরনের দূর্ঘটনার কারন হতে পারে,

  • পাহাড়ি আঁকাবাঁকা রাস্তা পেয়ে নিজের লেন বাদ দিয়ে অন্য লেনে গিয়ে কর্নারিং করবেন না, প্রতিনিয়ত এর জন্য বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটে যায়।
  • রাস্তা ফাকা বলে অতিরিক্ত গতিতে বাইক চালাবেন না
  • নিজের জাতীয় পরিচয়পত্রের কয়েকটি কপি সাথে রাখুন
  • স্থানীয় মানুষের সাথে অকারণে গ্যাঞ্জামে লিপ্ত হবেন না
  • এমন কোন কাজ করবেন না যাতে স্থানীয় মানুষের কাছে বাইকারদের নাম বদনাম হয়।

নিয়ন্ত্রিত গতিতে বাইক রাইড করুন এবং ভালোমানের হেলমেট ব্যবহার করুন। নিরাপদ থাকুন নিরাপদ রাখুন। ধন্যবাদ তথ্যসূত্রঃ বাংলা নিউজ , প্রথম আলো ,উইকিপিডিয়া