চাইনিজ কোম্পানি গুলো তৈরি করতে যাচ্ছে বড় ক্যাপাসিটির বাইক

This page was last updated on 03-Dec-2022 02:34pm , By Raihan Opu Bangla

ওয়েস্টার্ন এবং জাপানীজ অনেক বাইক কোম্পানি একটা সমস্যার মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, আর তা হল কিভাবে গ্যাসোলিন বা তেল থেকে ইলেক্ট্রিক বাইকে সুইচ করা যায়। অপর দিকে প্রথম বারের মত চাইনিজ বেশির ভাগ কোম্পানি ঝুকে পরেছে বড় এবং মাল্টিসিলিন্ডার যুক্ত ইঞ্জিনের দিকে। বলা যায় চাইনিজ কোম্পানি গুলো বিগ বাইক বেভ্যুলেশন এর দিকে এগিয়ে চলেছে। বছর জুড়ে চাইনিজ বাইক কোম্পানি গুলো ছোট ছোট এবং সিঙ্গেল সিলিন্ডার যুক্ত ইঞ্জিনের বাইক তৈরি করে আসছে। এই বাইক গুলো সাধারণ ট্রান্সপোর্ট এর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়। এখন তাদের কাস্টোমারদের ক্রয় ক্ষমতা বেড়েছে এবং বাইক রাইডিং তাদের লাইফস্টাইলের সাথে যুক্ত হয়েছে। তাই দেশের কোম্পানি গুলো দ্রুতগামী এবং বেশি ক্যাপাসিটির বাইকটি তৈরির দিকে ঝুকে পরেছে।

চাইনিজ কোম্পানি গুলো তৈরি করতে যাচ্ছে বড় ক্যাপাসিটির বাইক

 

আমরা দেখেছি Zontes Bike এর সিঙ্গেল সিলিন্ডার ৩১০সিসি ইঞ্জিন তৈরি করছে, এখন তারা প্ল্যান করেছে এই ইঞ্জিন থেকে বাড়িয়ে ১০০০ সিসি ইঞ্জিন তৈরি করার। Zontes কনফার্ম করেছে যে তারা ১০০০সিসি ট্রিপল সিলিন্ডারের ইঞ্জিন তৈরি করবে। এছাড়া থ্রি সিলিন্ডার ইঞ্জিনের ৬৫০সিসি ছোট ইঞ্জিনও তৈরি করতে যাচ্ছে। এই বছরের শেষ দিকে তারা ইঞ্জিন দুটি শো করবে বলে আশা করা যাচ্ছে। তবে এটা শিওর না যে তারা ইঞ্জিন শো করবে, নাকি পুরো মোটরসাইকেলসহ শো করবে। জনটেস হচ্ছে তাদের ইঞ্জিন ও বাইক দুটোই নিজেরাই তৈরি করে থাকে। অপর দিকে চায়নাতে কিছু কোম্পানি রয়েছে ইঞ্জিন ডিজাইন এবং তৈরিতে তারা বিশেষজ্ঞ, ও তারা সেইসব ইঞ্জিন বাইক কোম্পানির কাছে বিক্রয় করে থাকে। এদের মধ্যে Gaokin (GK) অন্যতম বড় কোম্পানি যারা বড় ক্যাপাসিটির ইঞ্জিন তৈরিতে এগিয়ে রয়েছে। এই কোম্পানিটি ইতিমধ্যে প্যারালাল ইঞ্জিন এবং ভি-টুইন ইঞ্জিন বাইকের জন্য তৈরি করেছে। ATVs, এয়াক্রাফট এবং প্লেন এর ইঞ্জিনও তৈরি করে থাকে। তবে তারা তাদের ১০০০সিসি ক্যাপাসিটির ইঞ্জিন Chongqing Motor Show এ প্রদর্শন করেছিল। 

 

যদিও GK V1000 ডিজাইনের ক্ষেত্রে কিছুটা পিছিয়ে ছিল এর অভ্যন্তরীন সমস্যার কারণে। আসলে কোম্পানির ডিজাইন ভেবে ছিল এক ভাবে তবে সেটা হয়েছে অন্য ভাবে। এখন লো-সিট হাইট, এর সাথে DOHC 90 ডিগ্রী ভি-টুইন ইঞ্জিন ও সেই সাথে বেল্ট ড্রাইভ ক্রুজার হিসেবে ডিজাইন করা হয়েছে। Benda LFC700 চার সিলিন্ডার যুক্ত বাইকের মত এই ডিজাইন ও স্টাইলিং করা প্রচেষ্টা সফল হয়নি। তবে বাইকটির ডিজাইনের ক্ষেত্রে তার প্রতিদ্বন্দি কোন কোম্পানির কাছ থেকে বাইকটি কপি করা হয়নি। V1000 বাইকটি GK এর একমাত্র বড় ক্যাপাসিটির বাইক প্রোজেক্ট নয়। কারণ তারা ইতিমধ্যে অস্ট্রিয়ার KSR Moto এর সাথে পার্টনারশিপ করেছে। তারা যেই ইঞ্জিন তৈরি করছে সেগুলো ব্রিক্সটোন ব্যান্ড এর আন্ডার পুরো বিশ্বজুড়ে বিক্রয় করছে। বর্তমানে ব্রিক্সটোন এর সবচেয়ে বড় ক্যাপাসিটির ইঞ্জিন হচ্ছে ৫০০সিসি প্যারালাল টুইন, ক্রসফায়ার। কিন্তু ২০১৯ সালে তারা আরও বড় ক্যাপাসিটির ইঞ্জিন শো করেছে যা প্যারালাল টুইন কনসেপ্ট এ তৈরি করা হয়েছে। যতদূর শোনা যাচ্ছে যে, ১২০০সিসি ক্যাপাসিটির রেট্রো ডিজাইন দিয়ে মোটরসাইকেল তৈরি করা হতে পারে, যা এর প্রতিদ্বন্দি Triumph’s Bonneville, এর কাছাকাছি হতে পারে। ১৯৬০ সালের দিকে মুলত একটি ওয়াটার কুল্ড প্যারালাল টুইন ইঞ্জিন তৈরি করা হয়েছিল, যাতে একটি ডামি ফিনস দেয়া হয়েছিল এয়ারকুল্ড বোঝানোর জন্য।

  

২০২০ সালে ব্রিক্সস্টন কনফার্ম করেছে যে, তারা কনসেপ্টকে শীঘ্রই প্রোডাকশনে নিয়ে যাবে। Gaokin এর কাছে ইতিমধ্যে ইঞ্জিনের ডিজাইন পেটেন্ট ভিজুয়াল করা হয়েছে, কনসেপ্ট এর যা যা রয়েছে সেভাবেই তৈরি করা হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে কনসেপ্ট এ অনেক কিছু দেখানো হয়নি, যেমন ফুয়েল ইনজেক্ট থ্রটল বডি এবং পানি সাপ্লাইয়ের জন্য সিলিন্ডার হেডের কাছে পাইপ এবং সেটা লোয়ার কেস থেকে রেডিয়েটর এ পৌছে দেয়া হয়েছে যা সামনের ডাউনটিউবের সাথে যুক্ত। চায়নার আর একটি অন্যতম বড় কোম্পানি হচ্ছে Zeths, যারা বড় ক্যাপাসিটি মার্কেটে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। বর্তমানে যারা ২৫০সিসি ভি-টুইন ইঞ্জিন ক্রুজার বিক্রয় করা থাকে। কিছু দিন আগেই কোম্পানিটি তাদের ৬০ ডিগ্রী ১০০০সিসি DOHC ভি-টুইন ইঞ্জিন শো-করেছে। তবে এটা বোঝা যাচ্ছে যে কোম্পানিটি ভবিষ্যতের জন্য অনেক বড় কিছু পরিকল্পনা করছে। Weisenke চায়নার অন্যতম বিখ্যাত ইঞ্জিন তৈরি কোম্পানি। যারা বর্তমানে ৭৯৬সিসি লাইন ফোর এর ইঞ্জিন তৈরি করেছে এবং যদি কোন বাইক বা মোটরসাইকেল কোম্পানি ইচ্ছে করে তবে তারা এই ইঞ্জিনটি নিজেদের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন।

 

কোম্পানিটি দাবি করছে যে ইঞ্জিন থেকে 117 hp @ 11,500 rpm এবং 93.55 Nm @ 9,500 rpm টর্ক উৎপন্ন করতে সক্ষম। ইঞ্জিনটি অন্যান্য চাইনিজ বাইকের ইঞ্জিন থেকে বেশ ভাল পারফর্ম করবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এত কিছু হচ্ছে তাহলে অন্য কেউ পিছিয়ে থাকবে কেন। কোম্পানিটি ওয়েস্টার্ন একটি কোম্পানির সাথে নিজেদের সংযুক্ত করেছে আর তারা বড় ইঞ্জিন তৈরির প্রোজেক্ট শুরু করেছে। বেনেল্লি মুল কোম্পানি হচ্ছে Qianjiang সম্প্রতি লঞ্চ করেছে ১২০০সিসি তিন সিলিন্ডার এর ট্যুরার, যা ইটালিয়ান টর্নেডো টার এ ব্যবহার করা হয়েছে। কোম্পানিটি MV Agusta এর ফোর সিলিন্ডার ১০০০সিসি এর ইঞ্জিন তাদের ভবিষ্যৎ মডেলে ব্যবহার করতে পারে। অপর দিকে CFMoto, তারা যুক্ত হয়েছে বিখ্যাত ব্র্যান্ড KTM Bike এর সাথে। তারা ইতিমধ্যে লঞ্চ করেছে KTM ইঞ্জিন সমৃদ্ধ MT800 এবং 1250TR-G ট্যুরার, যা অস্ট্রিয়ান ফার্ম LC8 motor থেকে তৈরি ভি-টুইন ইঞ্জিন।

Atlas Zongshen ইতিমধ্যে লাইসেন্স পেয়ে গিয়েছে এবং তারা Norton এর জন্য নতুন ভাবে ৬৫০সিসি প্যারালাল টুইন ইঞ্জিন তৈরি করেছে। শোনা যাচ্ছে যে, ভবিষ্যতে নরটন তাদের ইঞ্জিনের শক্তি বৃদ্ধি করে ৮০০সিসিতে উন্নিত করতে পারে। যদিও যারা ইউরোপ আমেরিকা ও জাপানী বাইক রাইড করেছেন তাদের কাছে চাইনিজ মোটরসাইকেল গুলো তাদের প্রত্যাশা পূরণ করতে পারবে না। তবে আশা করা যাচ্ছে চাইনিজ ব্রান্ড গুলো তাদের ইঞ্জিন আরও বেশি রিফাইন করবে।   

মেইন আর্টিকেলঃ China’s Big-Bike Revolution

Best Bikes

Honda CB Hornet 160R

Honda CB Hornet 160R

Price: 169800.00

Honda CB Hornet 160R ABS

Honda CB Hornet 160R ABS

Price: 255000.00

Honda CB Hornet 160R CBS

Honda CB Hornet 160R CBS

Price: 212000.00

View all Best Bikes

Latest Bikes

Honda SP160 (Single Disc)

Honda SP160 (Single Disc)

Price: 197000.00

Lifan Blues 150

Lifan Blues 150

Price: 0.00

Lifan KPV350

Lifan KPV350

Price: 0.00

View all Sports Bikes

Upcoming Bikes

Bajaj Freedom 125

Bajaj Freedom 125

Price: 0.00

Lifan K29

Lifan K29

Price: 0.00

455500

455500

Price: 0.00

View all Upcoming Bikes