• Partners:
  • Gear-X - Official Accessories Partner of BikeBD
  • Mobil - Official Lubricant Partner of BikeBD
  • Finder - Official Bike Security Partner of BikeBD
  • Carnival Assure - Official Insurance Partner of BikeBD

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকের টপ স্পিড ১৩০ – সজল

আমি সজল শিকদার। আমি ঢাকার সাভার জিরানী বিকে এস পি বসবাস করি । আমার জীবনের তৃতীয় বাইক Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 । বাইকটি কার্বোরেটর ভার্সন। আমি আমার Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকটির ৩৮,০০০ হাজার কিলোমিটার রাইডিং অভিজ্ঞতা শেয়ার করবো আপনাদের সাথে।

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 back light

আমার জীবনের প্রথম বাইক ছিল Bajaj Pulsar 150 এবং আমার জীবনের দ্বিতীয় বাইক ছিল Tvs Apache RTR 150 । এই দুইটা বাইক ব্যবহার করার পরে আমার সবথেকে বেশি পছন্দের ছিল Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155

Click To See Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 Bike Price In Bangladesh

ছোটবেলা থেকে আমার বাইকের প্রতি একটা নেশা কাজ করতো। আমি যখন অনেক বেশি ছোট ছিলাম (৩/৪) বছর  আমার বাবার কোলে বসে বসে বাবাকে বলতাম আমাকে বড় হলে হোন্ডা কিনে দিতে হবে। আল্লাহর অশেষ রহমতে আমার বাবা-আমার কথা রেখেছেন।

আমি বাইক চালানো শিখেছি আমার ছোট কাকার Yamaha RX 115 বাইকটি দিয়ে। আমি তখন অনেক ছোট ছিলাম। বাইকে বসে দুই পা দিয়ে মাটি নাগাল পেতাম না। আমি বাইক চালালে কাকা সব সময় পিছনে বসতো। এইভাবে দিনের-পর-দিন বাইকের প্রতি আমার আগ্রহ বেড়ে যায়।

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 marin drive road

তারপর বড় হই নিজের বাইক হয় এবং দিন দিন এক জেলা থেকে আরেক জেলা  বাইক নিয়ে ভ্রমন করার অভ্যাস হয়ে যায়। আমি আমার Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকটি বাংলাদেশ এন্টারপ্রাইজ সাভার শো-রুম থেকে ক্রয় করেছি ২,৫০,০০০ টাকা দিয়ে ।

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকটিতে আছে ডিজিটাল  স্পিডো মিটার, ১২ লিটার এর ফুয়েল ট্যাংক। 100/80-17 টিউবলেস টায়ার এবং 140/60R-17 টিউবলেস রেয়ার টায়ার। সামনের ডিস্ক ব্রেক এবং পিছনে ড্রাম ব্রেক বাইকটির ইনিশিয়াল পিক আপ এবং ব্রেক আমাকে মুগ্ধ করেছে।

Click To See Suzuki Gixxer SF First Impression Review In Bangla – Team BikeBD

বাইকটি প্রথম বার চালানোর অনুভূতি ছিল অসাধারণ কারণ বাইকটি চালানোর সময় যখন আমি ব্রেক করতেছিলাম এক অসাধারণ ফিল পাচ্ছিলাম। ভালোবাসার বাইকটা যখন নিজের কাছে আসে সেই অনুভূতিটা মুখে বলে প্রকাশ করা সম্ভব নয়।

২৫০০ কিলোমিটার এর আগে ৩৮-৪০ মাইলেজ পেয়েছি এবং ২৫০০ কিলোমিটার এর পরে ৪০-৪৫ মাইলেজ পেয়েছি। আমার সব সময় হাইওয়েতে বাইক চালানো বেশি হয়। কারণ আমার বাসা থেকে ১৯ কিলোমিটার দূরে আমার ইউনিভার্সিটি। আমি সব সময় ইউনিভার্সিটিতে বাইক নিয়ে যাতায়াত করি ।

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 river side

আমি বাইক কেনার পর থেকেই সুজুকি থেকে দেওয়া ইঞ্জিন অয়েল ব্রেক ইন পিরিয়ড ২৫০০ কিলোমিটার পর্যন্ত ব্যবহার করি। তারপর থেকে মুটুল ৭১০০ ফুল সিন্থেটিক ইঞ্জিন অয়েল ব্যবহার করতেছি বাইকের সাউন্ড এক্সলারেশন খুব ভালো। আর মাইলেজ সব সময় ৪২-৪৫ পাচ্ছি। লং ট্যুরে হাইওয়েতে ৫০+ ও পেয়েছি।

আমার বাইক সবসময় সুজুকি সার্ভিস পয়েন্ট সাভার থেকে সার্ভিস করাই । আমার জীবনে অনেক সুন্দর মুহূর্ত গুলো আমি আমার Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইক নিয়ে কাটিয়েছি যেখানে চার চাক্কা পৌঁছাতে পারবে না সেখানে আমার বাইক আমাকে পৌঁছে দিয়েছে।

Click To See All Suzuki Bike Price In Bangladesh

বাইকটি দিয়ে আমি পিলিয়ন সহ ঢাকা – চট্রগ্রাম হাইওয়েতে ১৩০ স্পিড পর্যন্ত উঠিয়েছি। কোন প্রকার ভাইব্রেশন ছাড়াই। এবং খুব স্মুথলি ব্রেক করে স্পিড কমিয়ে ফেলেছি। আল্লাহর অশেষ রহমতে Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 দিয়ে আমি কখনো কোন ধরনের দুর্ঘটনার সম্মুখীন হইনি।

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 Side view

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 ৩৮,০০০ কিলোমিটার চালানোর পর আমি কিছু যন্ত্রাংশ পরিবর্তন করেছিলাম । জিক্সার ব্যবহারকারী সবার একটাই সমস্যা হয় কার্বোরেটর নিয়ে । আমি ২৫ হাজার কিলোমিটার পর কার্বোরেটর পরিবর্তন করেছিলাম। পেছনের টায়ার 20 হাজার কিলোমিটার পর এবং সামনের টায়ার  27 হাজার কিলোমিটার পর পরিবর্তন করি ।

Click To See All Bike Price In Bangladesh

এছাড়া এয়ার ফিল্টার স্পার্ক প্লাগ, চেইন স্পোকেট, সামনের ব্রেক-সু পিছনের ব্রেক-সু পরিবর্তন করেছিলাম।

আমার বাইকে বেশ কিছু মডিফাই করেছিলাম

  • R15 V2 এর হ্যান্ডেল বার
  • হেডলাইট প্রজেকশন
  • উইনলেট এবং উইনসেট
  • পিলিয়ন সিট কেটে মডিফাই করেছি

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকটির কিছু ভালো দিক

  • লুক
  • ইনিশিয়াল পিক আপ।
  • মাইলেজ
  • ব্রেক
  • প্রশস্ত টায়ার

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকটির কিছু খারাপ দিক

  • কার্বোরেটর দ্রুত নষ্ট হয়
  • পাইপ হ্যান্ডেল বার আমার পছন্দ না
  • স্টকের হেড লাইট যা হাইওয়ে জন্য জন্য যথেষ্ট নয়
  • পার্টস এর দাম তুলনা মূলক বেশি
  • পিলিয়ন সিট কম্ফোর্ট না

Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 back light view

আমি আমার বাইক নিয়ে দেশের অনেক জায়গায় ট্যুর করেছি। এর মধ্যে বগুড়া, সিরাজগঞ্জ চায়না বাঁধ, ময়মনসিংহ, কিশোরগঞ্জ , নিকলী হাওর, চট্রগ্রাম , কক্সবাজার, সাজেক ভ্যালি, বান্দরবন, থানচি, আলীকদম ডিম পাহাড়, বরিশাল কুয়াকাটা, মানিকগঞ্জ, গাজীপুর আরো অনেক জায়গায় গিয়েছি। বাইকটি কখনো আমাকে ভ্রমণের সময় হতাশ করেনি।  খুব ভালো পারফর্মেন্স পেয়েছি।

বাইকটির কারবোরেটর আমাকে হতাশ করেছে। তাছাড়া আলহামদুলিল্লাহ বাইকটি আমার খুব পছন্দের। Suzuki Gixxer SF MotoGp SD 155 বাইকটির লুকস এবং ইনিশিয়াল পিকআপ বেশি হওয়াতে তরুণ বয়সের অনেকেই এই বাইক বেশি পছন্দ করে।

অনেকই অসচেতন ভাবে চালিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। সবার উচিত সাবধানে রাইড করা। আমার লেখার ভুল ত্রুটি থাকলে আমাকে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। এতক্ষণ ধরে কষ্ট করে আমার লেখাগুলো পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

 

লিখেছেনঃ সজল শিকদার

 

আপনিও আমাদেরকে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠাতে পারেন। আমাদের ব্লগের মাধ্যেম আপনার বাইকের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা সকলের সাথে শেয়ার করুন! আপনি বাংলা বা ইংরেজি, যেকোন ভাষাতেই আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ লিখতে পারবেন। মালিকানা রিভিউ কিভাবে লিখবেন তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং তারপরে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠিয়ে দিন articles.bikebd@gmail.com – এই ইমেইল এড্রেসে।

We will be happy to hear your thoughts

      Leave a reply

      BikeBD
      Logo