Runner turbo 125cc নিয়ে মালিকানা রিভিউ – মোঃ পারভেজ

আমি মোঃ পারভেজ । কেমন আছেন সবাই? আমি বেশ ভালো আছি। আজ আমি আপনাদের সাথে আমার Runner turbo 125cc বাইকটির সম্পর্কে ছোট একটা রিভিউ দিতে যাচ্ছি। আমি মুলত একজন চাকুরীজিবি। আমি আমার বাইক নিয়ে ঘুরতে খুব বেশি ভালোবাসি। কেন আমি এই বাইকটি কিনলাম?? কারন ১২৫ সেগমেন্ট এর ভিতর বাইকটির লুকিং আমার কাছে বেশ ভালোই লেগেছে। এছাড়া বাইকটির দাম ও খুব বেশি নয়। আমার সাধ্যের মধ্যেই ছিল । তাছাড়া অনেকের কাছেই বাইকটি নিয়ে অনেক রকম কথা শুনেছিলাম। তাই বাইকটি নেওয়া । বাইকটির বয়স ১ বছর এর বেশি । বাইকটি নিয়ে আমি ইতিমধ্যে মাওয়া, ৩০০ ফিট ও ঢাকার ভিতর ঘুরেছি। Runner Turbo…

Review Overview

User Rating: Be the first one !

আমি মোঃ পারভেজ । কেমন আছেন সবাই? আমি বেশ ভালো আছি। আজ আমি আপনাদের সাথে আমার Runner turbo 125cc বাইকটির সম্পর্কে ছোট একটা রিভিউ দিতে যাচ্ছি। আমি মুলত একজন চাকুরীজিবি। আমি আমার বাইক নিয়ে ঘুরতে খুব বেশি ভালোবাসি।

runner turbo 125 price

কেন আমি এই বাইকটি কিনলাম?? কারন ১২৫ সেগমেন্ট এর ভিতর বাইকটির লুকিং আমার কাছে বেশ ভালোই লেগেছে। এছাড়া বাইকটির দাম ও খুব বেশি নয়। আমার সাধ্যের মধ্যেই ছিল । তাছাড়া অনেকের কাছেই বাইকটি নিয়ে অনেক রকম কথা শুনেছিলাম। তাই বাইকটি নেওয়া । বাইকটির বয়স ১ বছর এর বেশি । বাইকটি নিয়ে আমি ইতিমধ্যে মাওয়া, ৩০০ ফিট ও ঢাকার ভিতর ঘুরেছি।

runner turbo 125 bikebd

Runner Turbo নিয়ে আমি যখন ঘুরতে বের হই তখন আমার অনেক ভালোই লাগে ।  অনেক এ অনেক কথা বলে । তবে আমি বলব বাইকটির ব্রেকিং সিস্টেম আমার কাছে বেশ ভালোই মনে হয়েছে । যখন আমি স্পিড ৯০+ রেখে ব্রেক করি তখন ও বাইকটি স্লিপ করেনি । বাইকটির সাউন্ড কোয়ালিটি অনেক স্মুথ।

runner turbo 125 price in bangladesh

লং ট্যুর এর সময় হাল্কা ব্যাক পেইন অনুভব হয় । তাছাড়া বাইক টি ৯৫+ কিমি/ঘন্টা স্পিড ওঠার পরে ভাইব্রেশন ফিল হয় । আমি যদিও বাইক এ  ১০৩ কিমি/ঘন্টা  স্পিড তুলতে সক্ষম হয়েছি । বাইকটি তে যদি ১২০ সেকশন এর টায়ার ব্যবহার করা হত তাহলে হয়ত স্লিপ কাটার সম্ভাবনা কম থাকত ।

>>>>Runner Turbo Specification<<<<

runner turbo 125 user review

বাইক এর টায়ার এর সাইজ ফ্রন্ট টায়ার সাইজ ২.৭৫-১৮ এবং রেয়ার টায়ার সাইজ ৯০/৯০-১৮ । টিউবলেস টায়ার । তাছাড়া বাইক এর লাইটিং সিস্টেম মোটামুটি ভালো এবং ডিসি । তবে মাঝে মাঝে রাতে লাইটিং সিস্টেম এর জন্য অনেক সময় বিপদ এ পরতে হয়। এই বাইকের হর্ন বেশ ভালো। বাইক এ আমি ২জন পিলিয়ন নিয়েও চালিয়েছি, তাতে কোন রকম সমস্যা হয়নি।

runner turbo bike bd price

বাইকটিতে ১২৪.৮ সিসি এর ইঞ্জিন রয়েছে । বাইক এর সিসি অনুযায়ী বাইক এর ওজন আমার কাছে ঠিক ই মনে হইছে। বাইক এর ওজন ১২৯ কেজি। বাইকটিতে কিক এবং সেলফ দুই ধরনের স্টার্ট দেয়া হয়েছে । তবে বাইকটির ওজন আর একটু বেশি হলে ভাল হতো ।

Runner Turbo 125 Price In Bangladesh

১৭০০০+কিমি এখন চলছে । এখন পর্যন্ত আমার বাইকের ক্লাস প্লেট বদলাতে হয়নি । বাইকের হাইড্রলিক ব্রেকটা অসাধারন। আমার কাছে বাইকের ব্যাক লাইটটা বেশি ভালো লাগে । আমি বাইকে সব সময় Mobil 4T ব্যাবহার করছি। বাইকের সাসপেশন অনেক মজবুত ও স্ট্রং। ভাংঙ্গা রাস্তাতে এর ভালই ফিডব্যাক পেয়েছি।

runner turbo 125 price 2019

আমি আমার বাইক এ কখনোই খোলা তেল ইউজ করিনি। সব সময় অকটেন ব্যবহার করেছি। বাইক এ ডিজিটাল মিটার থাকার কারনে কত নম্বর গিয়ার এ বাইক চলছে সেটা দেখা যায় খুব ই সহজে। বাইকটির উভয় টায়ার ই টিউবলেস। বাইক টি তে ১৪ লিটার তেল ভরা  যায়। সবশেষে আমি এটাই বলতে চাই যে Runner turbo ১২৫ বাইকটি আমার কাছে ১২৫সিসি সেগমেন্টে অসাধারণ । সকল কে ধন্যবাদ আমার রিভিউটি পড়বার জন্য । সবসময় হেলমেট এবং সেফটি গার্ড পরে বাইক চালাবেন।

 

লিখেছেনঃ মোঃ পারভেজ

 

আপনিও আমাদেরকে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠাতে পারেন। আমাদের ব্লগের মাধ্যেম আপনার বাইকের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা সকলের সাথে শেয়ার করুন! আপনি বাংলা বা ইংরেজি, যেকোন ভাষাতেই আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ লিখতে পারবেন। মালিকানা রিভিউ কিভাবে লিখবেন তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং তারপরে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠিয়ে দিন articles.bikebd@gmail.com – এই ইমেইল এড্রেসে।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*