LIFAN KPR 150 ১০,০০০ কিমি মালিকানা রিভিউ লিখেছেন শাহরিয়ার রাব্বি

হ্যালো, আমি শাহরিয়ার রাব্বি । লিফান কেপিআর ১৫০ নামটা নিশ্চয়ই বাইকারদের কাছে বর্তমানে নতুন কিছু নয়। আর LIFAN KPR 150 নামক এই বাইকটি নিয়ে আমি সর্বশেষ ১০,০০০ কিলো পথ পাড়ি দিলাম। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে আমার এই বাইকটি নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ার করব । যেদিন প্রথম এই বাইকটার ছবি দেখি, সেইদিন থেকে কেন যেন মনের মধ্যে আনচান করতে থাকে। মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান বলে CBR 150/R15 V3 চালানোর স্বপ্নটাকে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে দিইনি। তবে স্বল্প বাজেটে একটা স্পোর্টস বাইক চালানোর স্বপ্ন পূরণ করে দিলো LIFAN KPR 150. বাইকটি কেনার আগে হাজারটা কথা শুনতে হইছিলো আশেপাশের মানুষ থেকে, কারন আমি যে একটা…

Review Overview

User Rating: 3.72 ( 5 votes)

হ্যালো, আমি শাহরিয়ার রাব্বি । লিফান কেপিআর ১৫০ নামটা নিশ্চয়ই বাইকারদের কাছে বর্তমানে নতুন কিছু নয়। আর LIFAN KPR 150 নামক এই বাইকটি নিয়ে আমি সর্বশেষ ১০,০০০ কিলো পথ পাড়ি দিলাম। তাই আজ আমি আপনাদের সাথে আমার এই বাইকটি নিয়ে কিছু অভিজ্ঞতা শেয়ার করব ।

lifan kpr 150 user review

যেদিন প্রথম এই বাইকটার ছবি দেখি, সেইদিন থেকে কেন যেন মনের মধ্যে আনচান করতে থাকে। মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান বলে CBR 150/R15 V3 চালানোর স্বপ্নটাকে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে দিইনি। তবে স্বল্প বাজেটে একটা স্পোর্টস বাইক চালানোর স্বপ্ন পূরণ করে দিলো LIFAN KPR 150.

lifan kpr 150 speedometer

বাইকটি কেনার আগে হাজারটা কথা শুনতে হইছিলো আশেপাশের মানুষ থেকে, কারন আমি যে একটা চায়না মেশিন কিনতে যাচ্ছিলাম। তবে এই যাত্রায় আমাকে সবচেয়ে বেশি সাহস যুগিয়েছিল ক্লাব কেপিআর বাংলাদেশ(CKB) এর ভাই বন্ধু গন। তাও, প্রত্যেকদিন বাইকটা সম্পর্কে দেখতাম, জানতাম যদি কোন ঝামেলা হয় কিনার পরে।

lifan kpr price in bangladesh

না সব ঝামেলা কে পিছনে ফেলে ২৭ আগস্ট ২০১৮ তে আমি আমার স্বপ্নের বাইকটা কে বাসায় নিয়ে আসি। আজ পর্যন্ত আমাকে সে হতাশ করেনি, তবে যত কিলো যাচ্ছে কেন যানি মনের ভিতর আরো বেশি জায়গা করে নিচ্ছে। যেখানে যাচ্ছি কেউ না কেউ বলে ভাই বাইকটা সুন্দর, কি বাইক, কেমন সার্ভিস (অনেক জনকে নিজে থেকে টেস্ট ড্রাইভ দিয়েছি)।

lifan kpr bike bd

সে আমার সাথে চট্টগ্রামের সব পার্বত্য জেলা ভ্রমণ করেছে, একদিনে কক্সবাজার- মেরিন ড্রাইভ রোড শেষ করে আাবার চট্টগ্রাম এসেছে। আশা করি সামনের দিনগুলোতে সমান তালে ছুটে চলবে ।

Lifan KPR150 টেস্ট রাইড রিভিউ

ইঞ্জিনঃ Lifan KPR150 বাইকটিতে একটি ১৪৯ সিসির ওয়াটার কুলড ইন্জিনন রয়েছে যেটার কম্প্রেশন রেশিও হল ১১:৪:১ । যেটা অনেক হাই একটা কম্প্রেশন রেশিও । ওয়াটার কুলিং সিস্টেম থাকার ফলে ইন্জিন কোন অবস্থাতেই গরম হয়ে যাবার কোন চান্স নেই । এই ইন্জিন থেকে পাওয়ার ডেলিভারী হয় ৮৫০০ RPM এর কিন্তু সবথেকে আকর্ষণীয় বিষয়টি হল এর ম্যাক্সিমাম টর্ক হল ৬৫০০RPM , যার ফলে আপনি লোয়ার RPM এ স্পীড পেতে পারবেন এবং সেটাও ভাল মাইলেজের সাথে ।

lifan kpr 150 user

খরচ: এই ১০০০০+ কিলোতে আমি একবার এয়ার ফিল্টার এবং একবার সামনের ব্রেকপেড চেইঞ্জ করি। এছাড়া তেল ও ইঞ্জিন ওয়েল ছাড়া আর কোন ইনভেস্ট তার জন্য করতে হয়নি। এছাড়া পজেটিভ নেগেটিভ হাজার হাজার রিভিউ তো আপনারা প্রতিনিয়ত দেখতেছেন LIFAN KPR 150 নিয়ে। তাই, এই বিষয়ে আর কথা বাড়ালাম না।

ধন্যবাদ CLUB KPR BANGLADESH
ধন্যবাদ RUSSEL INDUSTIES

সবসময় নিজের এবং পরিবারের কথা চিন্তা করে, নিজের সর্বোচ্চ সেইফটি নিয়ে বাইক চালাবেন।

 

লিখেছেনঃ শাহরিয়ার রাব্বি

 

 

 

আপনিও আমাদেরকে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠাতে পারেন। আমাদের ব্লগের মাধ্যেম আপনার বাইকের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা সকলের সাথে শেয়ার করুন! আপনি বাংলা বা ইংরেজি, যেকোন ভাষাতেই আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ লিখতে পারবেন। মালিকানা রিভিউ কিভাবে লিখবেন তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং তারপরে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠিয়ে দিন articles.bikebd@gmail.com – এই ইমেইল এড্রেসে।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*