Ducati Streetfighter V4 – ২০০ এর অধিক হর্সপাওয়ার যুক্ত বাইক । বাইকবিডি

জনপ্রিয় ইতালিয়ান ব্রান্ড ডুকাটি তাদের নতুন Ducati Streetfighter V4  বাইকটি খুব শীঘ্রই বাজারে আনতে চলেছে। আশাকরা যাচ্ছে এক সপ্তাহের মধ্যে আমরা বাইকটির দেখা পাবো। বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ২০০ হর্স পাওয়ারের চাইতে বেশি শক্তিশালি ইঞ্জিন। বাইকটি স্ট্রিট বাইকের সিরিজে নতুন চমক যুক্ত করতে চলেছে। ডুকাটি আন্তজার্তিক বাজারে বেশ জনপ্রিয়। ইতালিয়ান এই বাইক কম্পানির বাইকগুলো বাইকপ্রেমীদের মনে বেশ শক্ত অবস্থান তৈরি করে আছে অনেকদিন থেকেই। আমাদের সবার প্রিয় ইয়ামাহা আর ১ বাইকটি ২০০ হর্স পাওয়ারের, কিন্তু Ducati Streetfighter V4  বাইকটি ২০০ এর অধিক হর্স পাওয়ার যুক্ত। বাইকটি নিঃসন্দেহে স্ট্রিট বাইকপ্রেমী মানুষের পছন্দের তালিকায় বেশ শক্ত একটা অবস্থান তৈরি করবে। ডুকাটি ২০০৯…

Review Overview

User Rating: 2.85 ( 1 votes)

জনপ্রিয় ইতালিয়ান ব্রান্ড ডুকাটি তাদের নতুন Ducati Streetfighter V4  বাইকটি খুব শীঘ্রই বাজারে আনতে চলেছে। আশাকরা যাচ্ছে এক সপ্তাহের মধ্যে আমরা বাইকটির দেখা পাবো। বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ২০০ হর্স পাওয়ারের চাইতে বেশি শক্তিশালি ইঞ্জিন। বাইকটি স্ট্রিট বাইকের সিরিজে নতুন চমক যুক্ত করতে চলেছে।

ducati streetfighter v4

ডুকাটি আন্তজার্তিক বাজারে বেশ জনপ্রিয়। ইতালিয়ান এই বাইক কম্পানির বাইকগুলো বাইকপ্রেমীদের মনে বেশ শক্ত অবস্থান তৈরি করে আছে অনেকদিন থেকেই। আমাদের সবার প্রিয় ইয়ামাহা আর ১ বাইকটি ২০০ হর্স পাওয়ারের, কিন্তু Ducati Streetfighter V4  বাইকটি ২০০ এর অধিক হর্স পাওয়ার যুক্ত। বাইকটি নিঃসন্দেহে স্ট্রিট বাইকপ্রেমী মানুষের পছন্দের তালিকায় বেশ শক্ত একটা অবস্থান তৈরি করবে।

ডুকাটি ২০০৯ সালে সর্বপ্রথম তাদের স্ট্রিট ফাইটার বাইকের সাথে আমাদের পরিচয় করিয়ে দেয়। এই মোটরসাইকেলটি বানানো হয়েছিলো সুপার বাইক ক্যাটাগরিতে। বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছিলো ১১০০ সিসির ইঞ্জিন। ২০০৯ সালে ডুকাটির স্ট্রিটফাইটার বাইকটি বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করে।

ডুকাটির এই সুপার স্ট্রিট বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ২০৮ হর্স পাওয়ার @ ১২,৭৫০ আরপিএম যুক্ত ১,১০৩ সিসির Desmosedici Stradale ইঞ্জিন।

ducati streetfighter v4 new super sports bike

ডুকাটির মতে তাদের Streetfighter V4  বাইকটি খুব অল্প সময়ে  আলোড়ন সৃষ্টি করবে। বাইকটিকে এক কথায় ইঞ্জিন শক্তির রাজা বলা যেতে পাবে।

শহরের রাস্তায় ছুটে বেড়ানোর জন্য Ducati Streetfighter V4   বাইকটিতে যুক্ত করা হয়েছে ১২৪ নিউটন মিটার টর্ক। এর ফলে যে সকল স্ট্রিট্ররাইডার ডুকাটি স্ট্রিটফাইটার ভি ৪ বাইকটি ব্যবহার করবেন তারা নিঃসন্দেহে এক ধাপ এগিয়ে থাকবেন।

কেন সুপারমটো গুলো আজও সবথেকে প্রিমিয়াম কোয়ালিটির বাইক হিসেবে ধরা হয়?

 Ducati Streetfighter V4  বাইকটি বানানো হয়েছে অনেকগুলো বৈশিষ্ট্যের সমন্বয় সেজন্য এই বাইকটি হবে অন্যান্য স্ট্রিটফাইটার বাইক থেকে কিছুটা ভিন্ন।

এই বাইকটিতে যুক্ত করা হয়েছে নতুন এবং অত্যাধুনিক সব ফিচার। এর ফলে বাইকটির দাম হবে তুলনামূলক কিছুটা বেশি।

আমারা আশা করতে পারি Ducati Streetfighter V4    বাইকটির মূল্য 20,000 ডলারের আশেপাশে থাকবে। যদিও  এটি একটি মোটা অঙ্কের পরিমাণ। তবে বাইকটির কিছু গুণ আপনাকে অবশ্যই আকৃষ্ট করবে।

super sports bike in bangladesh

কিছু প্রশ্নঃ

  1. ডুকাটি কোন দেশের বাইক?
    উত্তরঃ ডুকাটি একটি ইতালিয়ান বাইক।
  2. বাংলাদেশে কি ডুকাটির বাইক আছে?
    উত্তরঃ না। বাংলাদেশে ডুকাতির কোন বাইক নেই।
  3. ডুকাটির সবচেয়ে জনপ্রিয় বাইক কোনটি?
    উত্তরঃ আন্তজার্তিক বাজারে ডুকাটির অধিকাংশ বাইক বেশ জনপ্রিয়, তবে এর মধ্যে ডুকাটি পেনিগেল খুব বেশি জনপ্রিয়।
  4. স্ট্রিটফাইটার ভি ৪ বাইকটির সেরা দিক কোনটি?
    উত্তরঃ ২০০ হর্স পাওয়ারের চাইতে বেশি শক্তিশালি ইঞ্জিন এর প্রধান সেরা দিক।


আমাদের ডুকাটি থেকে  Ducati Streetfighter V4 বাইকটির অফিসিয়াল মূল্যের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। তবে, আশাকরা যাচ্ছে অপেক্ষাটি খুব বেশি দীর্ঘ সময় করতে হবে না। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশে ডুকাটির বাইকগুলো আসে না। এটা আমাদের দেশের বাইকদের জন্য দুক্ষজনক একটা ব্যাপার।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*