মোটরসাইকেলের ১৫টি বিশ্ব রের্কড যা আপনাকে অবাক করবে!!!

পুরো বিশ্ব জুড়ে যখন সবকিছু নিয়ে ওয়াল্ড রের্কড করা হচ্ছে তখন মোটরসাইকেল এর রের্কড কেন পিছিয়ে থাকবে । আমরা বিভিন্ন ধরনের ওয়াল্ড রের্কড দেখে এসেছি সব কিছু বিষয়ে নিয়ে এই যেমন পানির নিচে অক্সিজেন ছাড়া কতক্ষন থাকতে পারা !! বা কত মিটার আকাশের উপর থেকে লাফ দেওয়া !! আজকে আমরা সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আপনাদের সামনে তুলে ধরব এমন কিছু মোটরসাইকেল নিয়ে ওয়াল্ড রের্কড করা বিষয়গুলো । চলুন দেখে আসিঃ ১. বাইকের উপর দাড়িয়ে রাইড স্টান্ট রের্কডঃ- ভারতের ৩০ বছর বয়সী রতনেশ পান্ডে ইন্দোরের একজন স্টান্ট বাইকার এই রের্কডটি তৈরী করেন । রের্কডটি ক্রাইস্ট স্টান্ট নামে পরিচিত । ২০১৫ সালের…

Review Overview

User Rating: 4.9 ( 1 votes)

পুরো বিশ্ব জুড়ে যখন সবকিছু নিয়ে ওয়াল্ড রের্কড করা হচ্ছে তখন মোটরসাইকেল এর রের্কড কেন পিছিয়ে থাকবে । আমরা বিভিন্ন ধরনের ওয়াল্ড রের্কড দেখে এসেছি সব কিছু বিষয়ে নিয়ে এই যেমন পানির নিচে অক্সিজেন ছাড়া কতক্ষন থাকতে পারা !! বা কত মিটার আকাশের উপর থেকে লাফ দেওয়া !! আজকে আমরা সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে আপনাদের সামনে তুলে ধরব এমন কিছু মোটরসাইকেল নিয়ে ওয়াল্ড রের্কড করা বিষয়গুলো । চলুন দেখে আসিঃ

বিশ্ব রের্কড

১. বাইকের উপর দাড়িয়ে রাইড স্টান্ট রের্কডঃ– ভারতের ৩০ বছর বয়সী রতনেশ পান্ডে ইন্দোরের একজন স্টান্ট বাইকার এই রের্কডটি তৈরী করেন । রের্কডটি ক্রাইস্ট স্টান্ট নামে পরিচিত । ২০১৫ সালের ডিসেম্বরের ৫ তারিখে ইন্দোরের রাস্তায় ৪৮ মিনিট ধরে বাইকের হ্যান্ডেলবারে টাচ না করে টানা ৩২.৩ কিমি বাইকের উপর দাড়িয়ে রাইড করে তিনি এই বিশ্ব রের্কড গড়েছেন ।

বিশ্ব রের্কড crist stand on mortorbike

২. লংগেস্ট হুইলিঃ মিশিগানের নাইলস এ ১৯৫৫ সালের ডিসেম্বরের ৩১ তারিখে জন্মগ্রহন করেন ডাগ ডমোকস । তিনি পুরো বিশ্বের কাছে “দি হুইলি কিং” নামেও পরিচিত । তিনি এই পরিচিতিটি পান মোটরসাইকেলের শুধুমাত্র পিছনের চাকায় রাইড করার অদক্ষ ক্ষমতায় । ডমোকস শৈশবকাল থেকে ডার্ট বাইক রাইড করতেন এবং মোটরসাইকেল ওয়ার্কশপে কাজ করতেন ।

longest wheelie wheelie king

১৯৮০ থেকে ১৯৯০ সালের মধ্যে তিনি সবথেকে নামকরা মোটরসাইকেল নিয়ে এন্টারটেইনমেন্ট এর জন্য বিশ্ব বিখ্যাত ছিলেন । ১৯৮৪ সালে ডমোকস আলবামার টাল্লাডেগা স্পিডওয়েতে ১৪৫ মাইল হুইলি রাইড করে গিনেস ওয়াল্ড রের্কড করেন ।

৩. ফাস্টেস্ট হুইলিঃ আপনারা হয়ত জানেন যে হুইলি চ্যাম্পিয়নশীপ রেসও আছে মোটরসাইকেলের জন্য । যেখানে বেশ কিছু রাইডার হুইলির মাধ্যমে বিশ্ব রের্কড গড়ার চেষ্টা করে । হল্যান্ডের এগবার্ট ভ্যান পপটা হায়াবুসা টার্বো বাইক নিয়ে ২১৩.৩০৯ মাইল প্রতি ঘন্টায় রাইড করে বিশ্ব রের্কড গড়ে তুলেন ।

fastest wheelie in the world

৪. সর্বোচ্চ উচুতে উঠা মোটরসাইকেল নিয়ে রের্কডঃ আপনারা হয়ত ভাবছেন মোটরসাইকেল নিয়ে মানুষ পাহাড়ের কত উপরে উঠেছে?? হা এখন সেটি নিয়ে কথা বলব । আর এই রের্কডটি যেকোন পাহাড়ে করা হয় নি করা হয়েছে ওজোস ডি সালাদো ভলকেনো এর চূড়ায় যেটি এটাকামা রিজিয়ন এর চিলিতে অবস্থিত ।

motorcycle on highest peak world record

২০১৫ সালের ২২ মার্চে জিয়ানফ্রাঙ্কো বিয়ানচি মোটরসাইকেল নিয়ে একটানা ৬৪৭১.২ মি. ( ২১,২৩০ ফিট ১১ ইঞ্চি) পর্যন্ত রাইড করে চূড়ার উপরে যেয়ে বিশ্ব রের্কড করেন । তিনি এই রের্কডটি করেন ফুয়েল ইঞ্জেক্টেড সুজুকি আরএমজেড ৪৫০ নিয়ে ।

৫. মোটরসাইকেলে সবথেকে বেশি মানুষ রাইড করার রের্কডঃ এই রের্কডটি গড়ে তোলার জন্য মোটরসাইকেলটি স্পেশালভাবে মডিফাই করা হয়েছিল যাতে অনেকজন এই বাইকে উঠতে পারেন । ইন্ডিয়ার একটি মোটরসাইকেল টিম “এএসসি টর্নেডোস” মোটরসাইকেলটি চলন্ত অবস্থায় প্রায় ৫৮ জনকে নিয়ে ওয়াল্ড রের্কড করে ।

motorcycle record on riding

৬. ফাস্টেস্ট মোটরসাইকেল ল্যান্ড-স্পিড রের্কডঃ বিল ওয়ার্নার নামের একজন তৈরী করেন ১০০০ সিসির হর্স পাওয়ার টার্বো চার্জ সুজুকি হায়াবুসা এবং এটিকে বলা হয় বিশ্বের সব থেকে দ্রুতগামী মোটরসাইকেল যদিও এটি প্রডাকশন মোটরসাইকেল বা স্ট্রিম লাইনার বাইক নয় এবং এর ইঞ্জিন তৈরি একেবারে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ।

fastest speed motorcycle world record

২০১১ সালের ১৭ই জুলাই বিল এই বাইকটি নিয়ে ৩১১.৯৪৫ মাইল প্রতি ঘন্টা রাইড করে অফিসিয়ালি ল্যান্ড-স্পিড রের্কড করেন এবং তিনি নিজের এই রের্কডটি ভাঙ্গতে গিয়ে এক্সিডেন্ট এর সম্মুখীনও হয়েছিলেন ।

৭. মাউনটেইন জাম্প রের্কডঃ এলেইন প্রিয়র নামের একজন ব্যাক্তি যিনি এমন বাইক নিয়ে জাম্প দেওয়ার জন্য বেশ কিছু রের্কড আছে কিন্তু সেই রের্কডগুলো বিশ্ব রের্কড করার জন্য এলেইন প্রিয়র ৬২ মাইল প্রতি ঘন্টায় বাইক চালিয়ে পাহাড় থেকে বাইক নিয়ে লাফ দেন এবং মাটি থেকে হাফ মাইল আগে তিনি প্যারাসুট খুলেন এবং রের্কড গড়েন । জাম্পটি “ফিয়ার এগেনষ্ট ব্রেভস” নামেও পরিচিত ।

motorcycle mountine jump world record

৮. লংগেস্ট মোটরসাইকেল জাম্পঃ অস্ট্রেলিয়ার মেলবর্ন এর রবি ম্যাডিসন এই রের্কডটি গড়েন । রের্কডটি করার সময় তিনি ১৬২ কিমি প্রতি ঘন্টায় যেটি প্রায় ১০২ মাইল প্রতি ঘন্টায় তিনি তার মডিফাইড হোন্ডা সিআর ৫০০ নিয়ে প্রায় ১০৭.৮৯ মিটার বাইক নিয়ে জাম্প দিয়ে নিরাপদভাবে ল্যান্ডিং করে বিশ্ব রের্কড করেন ।

longest motorcycle long jump record

৯. গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন জাম্প মোটরসাইকেল রের্কডঃ রবি ক্যানিভেল হলেন ডেয়ার ডেভিল ইভেল ক্যানিভেল এর সন্তান এবং তিনি তার বাবার রাস্তা অনু্যায়ী ৬০ ফিট গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন এর উপর থেকে জাম্প দেওয়ার চিন্তা করেন এবং ২৫০০ ফিট উপরে মোটরসাইকেল ট্র্যাক থেকে জাম্প দেন এবং বিশ্ব রের্কড গড়েন । ল্যান্ডিং করার পর তিনি ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন যদিও কোন বড় ধরনের এক্সিডেন্ট এর সম্মুখীন তিনি হোন না ।

grand cannyon jump

১০. ফাস্টেস্ট স্পিড ড্র্যাগ মোটরসাইকেলের পিছনে দাড়িয়ে রের্কডঃ ইংল্যান্ডের লিভারপুলের একজন নাগরিক গ্যারি রথওয়েল এই রের্কডটি তৈরী করেন । ১৯৯৯ সালের ১৮ এপ্রিলে তিনি ব্রুনটিংথ্রপ প্রভিং গ্রাউন্ডে ১৫০ মাইল প্রতি ঘন্টায় রাইড করে তিনি বাইকের পিছনে যেয়ে টাইটেনিয়াম সোল বুটস পড়ে এই বিশ্ব রের্কড গড়েন ।

world drag behind motorcycle record

১১. লংগেস্ট মোটরসাইকেল রাইডঃ বুইওনোস এরিস এর এমিলিও স্কটো লংগেস্ট মোটরসাইকেল রাইড রের্কডটি করেন । তিনি দশ বছর ধরে ২৭৯ দেশে ভ্রমন করেন এবং তিনি এই সময় ব্যবহার করেন ১৯৮০ এর হোন্ডা গোল্ডউইং জিএল ১১০০ মোটরসাইকেল । স্কটো এই বাইকটিকে ব্ল্যাক প্রিন্সেস পরিচিতি দিয়েছিল ।

world record motorcycle tour

১৯৮৫ সালে স্কটো তার জব ছেড়ে দিয়ে চিন্তা করে তার ১১০০ সিসি এর গোল্ডউইং নিয়ে পুরো বিশ্ব ঘুরে বেড়াবে এবং তিনি প্রায় ১৩টি পাসপোর্টের ৬৪ পেজের পাসপোর্ট পূর্ন করেন । এই সময় তিনি তার মোটরসাইকেলের একবার ইঞ্জিন রিপ্লেসমেন্ট করেন এবং প্রায় ১২৫০০ ইউএস গ্যালন গ্যাসোলিন এবং ৩৫০ ইউএস গ্যালন ওয়েল এবং ৬৬ টায়ার এবং ১২ টি ব্যাটারী এবং নতুন নয়টি সিট চেঞ্জ করেন ।

১২. বিশ্বের সবথেকে ছোট মোটরসাইকেলঃ মোটরসাইকেলটি তৈরী করেন সুইডেন এর টম ওয়েবার্গ এবং মজার বিষয় হল টম এই মোটরসাইকেলটি রাইড করেন । অবশ্যই বাইকটি খুব দ্রুত চলবে না এবং অবশ্যই এই বাইক চালালে আপনি ভয়ানক মাজা ব্যাথায় ভুগবেন ।

world smallest motorcycle

গিনেস ওয়াল্ড রের্কড এই বাইকটিকে সব থেকে ছোট মোটরসাইকেল পৃথিবীর বলে ঘোষনা করেছেন এবং সার্টিফিকেটও দিয়েছেন ।

১৩. পৃথিবীর সবথেকে বড় মোটরসাইকেলঃ অবশ্যই সবথেকে ছোট মোটরসাইকেল দেখে আপনার হয়ত ধারনা আসবে তাহলে বিশ্বের সব থেকে বড় বাইক কোনটি?? হ্যা অবশ্যই আছে । পার্থ অস্ট্রেলিয়ার একজন মেকানিক রে বোম্যান প্রায় ২৫০০০০ ডলার খরচ করে এবং পৃথিবীর সবথেকে বড় মোটরসাইকেল তৈরী করেন । রে বোম্যান এটিকে “মনোস্টার মোটরবাইক” বলে আখ্যয়িত করেছেন ।

 

world biggest motorcycle

আপনি হয়ত দেখছেন বড় বড় মনোস্টার ট্রাক কি অনায়সে ছোট ছোট গাড়িগুলোকে ভেঙ্গে ফেলে কিন্তু এখন আপনারা দেখতে পাবেন কার-ক্রাশিং মোটরসাইকেল । মোটরসাইকেলটির ওজন প্রায় ১৩.৬ টন এবং এক একটি মোটরসাইকেলের টায়ার মোটরসাইকেলের ওজনের সমান । বাইকটি প্রায় ২০ ফিট লম্বা এবং ইঞ্জিনটি হল মডিফাইড ডিট্রয়েট ডিজেল ইনলাইন ভি৬ ।

১৪. সব থেকে দামী মোটরসাইকেলঃ নেইম্যান মার্কাস লিমিটেড এডিশন ফাইটার দেখতে খুব সাধারন বাইক এবং রাইড করতেও একটু সমস্যা হয় । এই বাইকটি কনফেডারেট মোটর কোম্পানি ডিজাইন করে এবং অকশনে প্রায় ১১ মিলিয়ন ডলার দিয়ে বিক্রি হয় ।

world most expensive motorcycle

শুধুমাত্র এর ইউনিক বডির জন্য এবং ফাইটার এই বাইকটি প্রায় ১৯০ মাইল প্রতি ঘন্টায় স্পিড তুলতে সক্ষম হয়েছে এবং মাত্র ৪৫টি বাইক তৈরী করা হয় এই স্পেশাল লিমিটেড এডিশনে ।

১৫. বিশ্বের সবথেকে বড় মোটরসাইকেল লগোঃ লগো এর এই বিশ্ব রের্কড তৈরী হয়েছে আমাদের বাংলাদেশে । প্রায় ১২৫৭ মোটরসাইকেল নিয়ে তৈরী করা হয়েছিল এই লগোটি ।

world biggest motorcycle brand logo

আর এই লগোটি তৈরী হয়েছিল ২০১৮ সালের ২৬ মার্চে বাংলাদেশের প্রধান জেলা ঢাকা শহরে এবং এই লগো তৈরী করতে সহায়তা করেছিল এসিআই মটরস লিমিটেড ।

About Arif Raihan opu

One comment

  1. sbz.frd@gmail.com'

    I want look always updated rate of all brands m\c.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*