হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে কম্পারিজন

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে ফিচার কম্পারিজন রিভিউ। বর্তমান বাজারে ১০০-১২৫সিসি কমিউটার মোটরসাইকেল সেগমেন্টে ১১০সিসি মোটরসাইকেলগুলি অনেকটাই বাজার দখল করে রয়েছে। এই সেগমেন্টে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বেশকিছু মোটরসাইকেল প্রতিযোগীতামূলক কমিউটিং ফিচার নিয়ে  বাজারে রয়েছে। এছাড়াও বাড়তি স্পোর্টি-ফিচার যুক্ত হওয়ায় ক্রেতারা অনেকসময়েই বিভ্রান্তিতে পড়ে যান আসলে কোনটা কিনবেন। সুতরাং মোটরসাইকেলগুলির ফিচারগুলি তুলে ধরার জন্যেই আমাদের আজকের আয়োজন।

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে ওভারভিউ

আজকের আলোচনায় আমরা হোন্ডা, বাজাজ, টিভিএস এবং সুজুকি থেকে ১১০সিসি ক্যাটাগরির চারটি মোটরসাইকেল বেছে নিয়েছি। সুতরাং, হোন্ডা লিভো, বাজাজ ডিসকভার ১১০, টিভিএস মেট্রো প্লাস এবং সুজুকি হায়াতে এখানে স্থান পেয়েছে। সুনির্দিষ্টভাবে বলা যায় আলোচিত মডেলগুলি প্রতিটিই কমিউটার এবং তারা কমিউটিং ফিচার ফোকাস করেই তৈরী।  তবে সেইসাথে কিছু স্পোর্টি ও ট্রেন্ডি লুক এবং ডিজাইন যোগ করা হয়েছে যা বাইকগুলিতে বাড়তি আবেদন ও পরিচয় দিয়েছে।

হোন্ডা লিভোতে মোটরসাইকেলটি একটি সম্পূর্ণ নতুন কালার-স্কিম এবং গ্রাফিক্সসহ নতুন এক্সটেরিয়র ডিজাইন পেয়েছে। এটি চমৎকার স্পোর্টি ও শার্পার একটি এক্সটেরিয়র ধারন করেছে। আর এর সম্পূর্ণ ভিন্ন এ্যারোডাইনামিক অ্যাথলেটিক ডিজাইন এটিকে প্রচলিত কমিউটার থেকে অনেকটাই আলাদা মাত্রা দিয়েছে। এটি আক্ষরিকভাবেই একটু বেশি ক্ষমতার স্ট্রিট-বাইকের মতোই ডিজাইন পেয়েছে।

আলোচনার এই অংশে বলা যায় ডিস্কোভার-১১০ মূলত বাজাজ ডিস্কোভার সিরিজের মূল আইকনিক লুক ও ডিজাইনটিই ধরে রেখেছে। প্রায় কোনকিছুই এতে পরিবর্তিত হয়নি। এর ফাঁপানো ও কিছুটা উপবৃত্তাকার অবয়বটিই এতে অক্ষুন্ন তবে নতুন এলডি-ডিআরএল, হুইল ডিজাইন প্রভৃতি বিষয়ে কিছু পরিবর্তন এসেছে। আর সেইসাথে  এটির আলাদা পরিচয় নিশ্চিত করার জন্যে অবশ্যিকভাবেই নতুন কালার ও গ্রাফিক্স ডিজাইন আপডেট হয়েছে।

এখানে টিভিএস মেট্রো-প্লাস মোটামুটি একটি কমন লুক ও ডিজাইনযুক্ত তবে অবশ্যই তা যথেষ্ট আধুনিক ও পরিশীলিত। টিভিএস এর এই মোটরসাইকেলটি অবধারিতভাবেই মেট্রো-সিরিজের মতোই আইকনিক প্রোফাইল ধারণ করে। সুতরাং এটি বেশ স্লিক, স্লিম এবং স্পোর্টি-কার্ভযুক্ত, যা নিঃসন্দেহে দৃষ্টিনন্দন। আর এছাড়াও মেট্রো প্লাস নতুন কালার ও গ্রাফিক্স ডিজাইনসহ নতুন হুইল ডিজাইন ও অডো-সেটআপসহ এসেছে।

আর সুজুকি হায়াতে হলো আরেকটি হালকা-পাতলা অবয়বের একটি মডেল যা সবমিলিয়ে পুরোপুরিই কমিউটিং প্রফাইল প্রতিফলিত করে। মোটরসাইকেলটি খুবই ক্যাটাগরি ও ফিচার ফোকাসড। তবে বর্তমান সময়ের সাথে মিলিয়ে ট্রেন্ডি ডিজাইন ও ইরগনোমিক্স সাজানো হয়েছে। ফলে দৃষ্টিনন্দন ও আকর্ষনীয় গ্রাফিক্স-স্কিমসহ মোটরসাইকেলটি যেকোন ধরনেরই কমিউটার ব্যবহারকারীদের কাছে পছন্দ করার মতোই ডিজাইন করা হয়েছে।

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে

ফ্রেম, হুইল, ব্রেক, ও সাসপেনশন সিস্টেম

আমাদের আলোচিত মোটরসাইকেলগুলি এন্ট্রি-লেভেল কমিউটার হওয়ার কারণে তারা মোটামুটি একই ধরণের ফ্রেম, হুইল, ব্রেক এবং সাসপেনশন সিস্টেম ধারন করে। তবে স্পষ্টতই তাদের ফিচার ও ডাইমেনশনে কিছু ভিন্নতা রয়েছে। এখানে সমস্ত মডেলই মোটামুটি একই ধরণের ডায়মন্ড ফ্রেম ধারণ করে। তবে মেট্রো-প্লাস তার ফ্রেমটিকে টিউবুলার-ফ্রেম হিসেবে উল্লেখ করে।

এছাড়া মোটরসাইকেলগুলি তাদের হুইল সেটআপে এ্যালয়-রিমসহ মোটামুটি একইধরনের বৈশিষ্ট্যযুক্ত। তবে হোন্ডা লিভো এবং সুজুকি হায়াতে মডেলে টিউবলেস টাইপ টায়ার দেয়া হয়েছে। অপরদিকে ডিসকভার-১১০ এবং মেট্রো-প্লাসে প্রচলিত টিউবড-টায়ার দেয়া হয়েছে। এখানে হোন্ডা লিভোর সামনে এবং পেছনে রয়েছে একইমাপের 80/100-18 আকারের হুইল। তবে অন্যান্য তিনটি মডেলেই তাদের সামনের এবং পিছনে যথাক্রমে একই 2.75×17 এবং 3.00×17 আকারের হুইল রয়েছে।

আর ব্রেকিং সিস্টেমের ক্ষেত্রে এখানে সবগুলো মডেলে তাদের উভয় হুইলেই ড্রাম-টাইপ ব্রেক রয়েছে। তবে হোন্ডা লিভো এবং মেট্রো-প্লাসে ফ্রন্ট-হাইড্রোলিক-ডিস্ক ব্রেক সেটআপযুক্ত মডেলও রয়েছে। এছাড়াও, লিভোতে এ্যাডভান্সড কম্বি-ব্রেক-সিস্টেম রয়েছে। এটি সাধারণভাবে চালককে তুলনামূলকভাবে একটি নিরাপদ ব্রেকিংয়ের অভিজ্ঞতা দেয়।

সাসপেনশন সিস্টেমে, আলোচিত সবগুলো মডেলেই সামনের দিকে একটি আপরাইট হাইড্রোলিক টেলিস্কোপিক-ফর্ক সাসপেনশন সিস্টেম রয়েছে। আর সব মডেলেরই পেছনে সিলড-হাইড্রোলিক কয়েল-স্প্রিং-লোডড ডাবল ইউনিট সাসপেনশন সিস্টেমটি রয়েছে। আর এই সাসপেনশনগুলি মডেলভেদে সবগুলিই মোটামুটি এ্যাডজাষ্টেবল টাইপের। তবে বাড়তি ডিসকভার-১১০ মডেলটিতে নাইট্রক্স-গ্যাস চার্জড ক্যানিস্টার রয়েছে।

কন্ট্রোলিং ও হ্যান্ডেলিং ক্যারেক্টারিষ্টিকস

কন্ট্রোলিং ও হ্যান্ডেলিং ফিচার বিচারে আলোচিত মডেলগুলি সাধারণভাবে সম্ভাব্য সবধরনের কমিউটিং ফিচারযুক্ত। মোটামুটি সবগুলো মডেলেই রয়েছে আরামদায়ক আপরাইট রাইডিংয়ের উপযোগী পাইপ-হ্যান্ডেলবার, ফুট-পেগ এবং অন্যান্য কন্ট্রোলিং লিভারগুলির  আরামদায়ক অবস্থান। এছাড়াও, বাইকগুলির সিটিং এ্যারেন্জমেন্টও বেশ আরামদায়ক ও সুপরিসর যাতে শহর ও গ্রামানঞ্চলের জনসাধারনের চলাচলের সাধারন প্রয়োজনগুলি মেটানো যায়।

আর সামগ্রিক ওজন, গ্রাউন্ড-ক্লিয়ারেন্স এবং অন্যান্য ডাইমেনশন মিলিয়ে সবগুলো মডেলই বেশ কাছাকাছি ধরনের সহজ কন্ট্রোলিং ও হ্যান্ডেলিং ক্যারেক্টারিষ্টিকসযুক্ত। তবে হোন্ডা লিভো ১১১কেজি ওজন সহ ১৮” সাইজ হুইল এবং ১৮০মিমি গ্রাউন্ড-ক্লিয়ারেন্স নিয়ে কিছুটা এগিয়ে রয়েছে। এছাড়াও এ্যারোডাইনামিক বডি-প্যানেল বাইকটিকে বাতাসের চাপ মোকাবেলায় বাড়তি সক্ষমতা দিয়েছে।

অন্যদিকে, টিভিএস মেট্রো-প্লাস স্লিক-বডি ডিজাইনের সাথেসাথে ১৭২মিমি গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্সযুক্ত। এটি খুব স্বাচ্ছন্দে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, যা ১৬৫মিমি গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স এবং ১১৪কেজি ওজন নিয়েও সুজুকি হায়াতে তে একই রকম।আর বাজাজ ডিসকভার-১১০ একটি অতি পরিচিত একটি মডেল যা এমনকি ১১৭কেজি ওজনের ভারী মডেল হয়েও স্বাচ্ছন্দ্যকর রাইডংয়ের অভিজ্ঞতা দেয়।

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে ইঞ্জিন ও পারফর্মেন্স ফিচার

আমাদের আজকের আলোচিত সবকটি মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনই সাধারনভাবে মোটামুটি একইধরনের। সবকটি ইঞ্জিনই মূলত: সিঙ্গেল-সিলিন্ডার, ফোর-স্ট্রোক, এয়ার-কুলড ইঞ্জিন। এগুলিতে কার্বুরেটর ফুয়েল-ফিডিংসহ ২-ভালভ এবং এসওএইচসি ফিচার রয়েছে। তবে ইঞ্জিনগুলির পার্থক্য হলো সিলিন্ডার ক্যাপসিটি ও ডাইমেনশনে, যা একই নয়।

এখানে ডিসকভার-১১০ DTS-I ইগনিশন সিস্টেমযুক্ত। তবে অন্যান্য ইঞ্জিনগুলি সিঙ্গেল-স্পার্ক ইগনিশনযুক্ত। তবে আলোচিত সবকটি মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনই ফোর-স্পিড গিয়ার ট্রান্সমিশনযুক্ত। আর সবকটি বাইকেই রয়েছে কিক ও ইলেকট্রিক স্টার্ট ফিচার।

তবে ইঞ্জিন পারফরম্যান্স ফিগারের ক্ষেত্রে সবগুলি মডেলেরই পাওয়ার ও টর্ক ফিগার আনেকটাই কাছাকাছি। যাহোক, লিভো, ডিসকভার-১১০, মেট্রো-প্লাস এবং হায়াতের ইঞ্জিনে রয়েছে যথাক্রমে 6.20kW, 6.30kW, 6.17kW, and 6.11kW পাওয়ার। আর আরো রয়েছে ক্রমানুসারে 9.09NM, 9.81NM, 8.7NM, 8.8NM টর্ক।

সুতরাং সবমিলিয়ে ১১০সিসি কমিউটার প্রোফাইল বিবেচনায় মোটরসাইকেলগুলির এই পারফরম্যান্স ফিগার যথেষ্টই বটে। আর এর সাথে সাথে কোম্পানী প্রদত্ত তথ্যানুসারে তাদের ফুয়েল ইকোনমি রেঞ্জও বেশ কাছাকাছি। তবে অবশ্যই একজন রাইডারের রাইডিং প্যাটার্ণ, রোড ও ট্রাফিক সিচুয়েশন এবং মোটরসাইকেলের সার্বিক অবস্থার উপরই বাইকের সামগ্রিক পারফরমেন্স নির্ভর করে।  এটাই মূলত: হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে রিভিউয়ের শেষ কথা, ধন্যবাদ।

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে

হোন্ডা-লিভো ভার্স ডিসকভার-১১০ ভার্স টিভিএস-মেট্রো-প্লাস ভার্স সুজুকি-হায়াতে স্পেসিফিকেশন

SpecificationHonda LivoDiscover 110TVS Metro PlusSuzuki Hayate
EngineSingle Cylinder, Four Stroke, Air Cooled, BS-IV SI EngineSingle Cylinder, Four Stroke, Air Cooled, DTS-I EngineSingle Cylinder, Four Stroke, Air Cooled, SI EngineSingle Cylinder, Four Stroke, Air Cooled Engine
Displacement109.19cc115.45cc109.7cc112.8cc
Bore x Stroke50.0mm x 55.0mm53.5mm x 48.8mm51.0mm x 55.2mm
Compression Ratio9.1:19.2:19.5:1
Valve System2-Valve, SOHC2-Valve, SOHC2-Valve, SOHC2-Valve, SOHC
Maximum Power6.20kW(8.43PS)

@7,500RPM

6.30kW(8.6PS)

@7,000RPM

6.17kW(8.4PS)

@7,500RPM

6.11kW(8.3PS)

@7,500RPM

Maximum Torque9.09NM

@5,000RPM

9.81NM

@5,000RPM

8.7NM

@5,000RPM

8.8NM

@5,500RPM

Fuel SupplyCarburetorCarburetorCarburetorCarburetor
IgnitionCDICDIDC -Digital IgnitionCDI
Clutch TypeWet Type Multi-Plate ClutchWet Type Multi-Plate ClutchWet Type Multi-Plate ClutchWet Type Multi-Plate Clutch
Starting MethodKick & ElectricKick & ElectricKick & ElectricKick & Electric
Air Filter TypePaper Air FilterPaper Air FilterPaper Air FilterPaper Air Filter
Transmission4-Speed,

Rear N-1-2-3-4

4-Speed4-Speed,

Rear N-1-2-3-4

4-Speed,

Front N-1-2-3-4

Frame & Dimensions

Frame TypeDiamond FrameDiamond FrameSingle Cradle Tubular FrameDiamond Frame
Dimension (LxWxH)2,020mm x 738mm x 1,099mm2,035mm x 760mm x 1,085mm1,980mm x 750mm x 1,105mm2,030mm x 720mm x 1,070mm
Wheelbase1,285mm1,305mm1,260mm1,260mm
Ground Clearance180mm165mm172mm165mm
Saddle Height
Kerb Weight111Kg (Disc)117.5Kg (Drum)109Kg (ES)114Kg
Fuel Capacity:8.5 Liters8.0 Liters10.0 Liters10.5 Liters
Engine Oil Capacity1.0 Liter

Wheel, Brake, & Suspension

The Suspension

(Front/Rear)

Telescopic Fork /

Spring-Loaded Hydraulic x2

140mm Travel Telescopic Fork /

120mm Travel Nitrox Gas Charged x2

Telescopic Fork /

Spring-Loaded 5-Step Adjustable Hydraulic x2

Telescopic Fork /

Coil Spring, Oil Damped x2

Brake system

(Front/Rear)

Front: 240mm Disc / 130 Drum

Rear: 130 Drum;

Combi-Brake System

Front: 130mm Drum

Rear: 110mm Drum

Front: 200mm Disc /130mm Drum

Rear: 110mm Drum

Front: Drum Type

Rear: Drum Type

Tire size (Front / Rear)Front: 80/100-18

Rear: 80/100-18

Both Tubeless

Front: 2.75×17

Rear: 3.00×17

Front: 2.75×17

Rear: 3.00×17

Front: 2.75×17

Rear: 3.00×17

Both Tubeless

Battery12V, 3Ah (MF)12V, 5Ah (MF)12V, 5Ah (MF)12V, 5Ah (MF)
Headlamp12V 35/35W Bulb12V 35/35W Bulb

Including LED DRL

12V 35/35W Bulb

Including LED DRL

12V 35/35W Bulb
SpeedometerAnalog-Digital Combo UnitDigitalAnalog-Digital Combo UnitAnalog

*All the specifications are subject to change upon company rules, policy, offer & promotion. BikeBD is not liable for the changes.

About Saleh Md. Hassan

it's Saleh, a homebound stranger; sometimes unleashes the inner ascetic to trail like an outlaw.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*