হিরো বাংলাদেশে লঞ্চ করেছে নতুন Hero Splendor+ IBS

হিরো মটোকর্প বাংলাদেশ লঞ্চ করেছে Hero Splendor+ IBS (Integrated Braking System) এর মুল্য ধরা হয়েছে ৯৬,৯৯০/- টাকা । এই বাইকটি বাংলাদেশের ১০০সিসি সেগমেন্টের মধ্যে ইউনিক এবং ফিচার্স সমৃদ্ধ মোটরসাইকেল । Hero Splendor+ IBS - ফিচার্স হিরো এই বাইকটিতে দিয়েছে Integrated Braking System । এটি হচ্ছে যখন আপনি পায়ের ব্রেকে চাপ প্রয়োগ করবেন, তখন একই সাথে সামনে ও পেছনের ব্রেক কাজ করবে । এর কারনে আপনার ব্রেকিং এর দক্ষতা আরও বাড়বে এবং বাইকের কন্ট্রোল আরও ভাল হবে । Hero Ignitor এবং Hero Passion X Pro এর মত হিরো এই বাইকটিতে দিয়েছে i3S টেকনোলজি । যা হচ্ছে, যখন আপনি ট্রাফিক সিগনালে বাইকটি নিয়ে যখন…

Review Overview

User Rating: 4.8 ( 1 votes)

হিরো মটোকর্প বাংলাদেশ লঞ্চ করেছে Hero Splendor+ IBS (Integrated Braking System) এর মুল্য ধরা হয়েছে ৯৬,৯৯০/- টাকা । এই বাইকটি বাংলাদেশের ১০০সিসি সেগমেন্টের মধ্যে ইউনিক এবং ফিচার্স সমৃদ্ধ মোটরসাইকেল ।

[ 3 ]
[ 2 ]

hero splendor+ ibs

Hero Splendor+ IBS – ফিচার্স

  1. হিরো এই বাইকটিতে দিয়েছে Integrated Braking System । এটি হচ্ছে যখন আপনি পায়ের ব্রেকে চাপ প্রয়োগ করবেন, তখন একই সাথে সামনে ও পেছনের ব্রেক কাজ করবে । এর কারনে আপনার ব্রেকিং এর দক্ষতা আরও বাড়বে এবং বাইকের কন্ট্রোল আরও ভাল হবে ।
  2. Hero Ignitor এবং Hero Passion X Pro এর মত হিরো এই বাইকটিতে দিয়েছে i3S টেকনোলজি । যা হচ্ছে, যখন আপনি ট্রাফিক সিগনালে বাইকটি নিয়ে যখন অপেক্ষা করবেন তখন এই টেকনোলজির কারনে বাইকটি ইঞ্জিন অটোমেটিক অফ হয়ে যাবে, সিগনাল ছেড়ে দিলে আপনাকে শুধু ক্লাচ ধরতে হবে আর বাইকটি স্টার্ট হয়ে যাবে । হিরো বিশ্বাস করে এটি ফুয়লে এর ক্ষেত্রে অনেক সাশ্রয়ী হবে ।
    hero splendor+ ibs price in bangladesh
  3. প্রথম বারের মত হিরো এই সেগমেন্টে যুক্ত করেছে টিউবলেস টায়ার । বাইকটির আগের ভার্সনের থেকে এতে নতুন ভাবে যুক্ত করা হয়েছে ৮০ সেকশন রেয়ার টায়ার ।
  4. বাইকটির সবচেয়ে আকর্ষনীয় ফিচার হচ্ছে এর সাইড স্ট্যান্ড ইন্ডিকেটর । এটি হচ্ছে সাইড স্ট্যান্ড থাকা অবস্থায় বাইকটি স্টার্ট করা যাবে না ।
  5. এছাড়া আরও যুক্ত করা হয়েছে ১৩০মিমি ড্রাম ব্রেক, যা আগের ভার্সনে ছিল ১১০মিমি ।

hero splendor + ibs price

[ 1 ]

এই প্রোগ্রামের উদ্বোধন করেন HMCL বাংলাদেশ লিমিটেড এবং নিটল নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান মিস্টার আব্দুল মাতলুব আহমাদ । তার সাথে আরও ছিলেন, HMCL নিলয় বাংলাদেশ লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডিরেক্টর আব্দুল মুসাব্বির আহমাদ, HMCL এর চিফ অপারেটিং অফিসার মিস্টার নাগেন্দ্র ত্রিবেদী এবং HMCL এর চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার বিজয় কুমার মন্ডল সহ নিলয় মটরস লিমিটেড এবং এইচ.এম.সি.এ. নিলয় বাংলাদেশ লিমিটেড এর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ ।

আপনি দেখলে বুঝতে পারবেন যে বাইকের পরিবর্তন গুলো হয়ত ছোট মনে হতে পারে । তবে এই পরিবর্তনের জন্য বাইকটি মাত্র ৩০০০/- টাকা বেশি ধরা হয়েছে । বাইকটির ইঞ্জিন হচ্ছে BSIV কমপ্লায়েন্স ইঞ্জিন এবং দেয়া হয়েছে AHO, সেলফ এবং কিক স্টার্ট সিস্টেম ।

nitol niloy group chairman

এর ইঞ্জিন এ দেয়া হয়েছে ৪ স্পিড গিয়ারবক্স, ইঞ্জিন থেকে 8.1 BHP @ 8000 RPM এবং 8 NM of Torque @ 5000 RPM উৎপন্ন হয় ।

এছাড়া বাইকটিতে আরও দেয়া হয়েছে টেলিস্কোপিক হাইড্রোলিক শক এবজরভার, অপর দিকে রেয়ারে দেয়া হয়েছে এডজাস্টেবল হাইড্রোলিক শক এবজরভার । বাইকটির ওজন ১১৩ কেজি এবং ফুয়েল ট্যাঙ্কে ১০.৫ লিটার ।

<<<<<ইংলিশের পড়ার জন্য এখানে ক্লিক করুন>>>>> 

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*