রয়েল এনফিল্ড বুলেট এর যে মডেলগুলো বাংলাদেশে আসতে পারে

রয়েল এনফিল্ড বুলেট অনেক বাইকারদের কাছে স্বপ্নের বাইক। আর আমার কাছে এনফিল্ড বুলেট মানে ভালো লাগার আরেক নাম। ৩৫০ সিসির পারমিশন হলে রয়েল এনফিল্ড বুলেট এর কি কি বাইক আমাদের দেশে আসতে পারে? এই বাইকগুলোতে কি কি থাকছে? এই সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক। ইফাদ গ্রুপের এর হাত ধরে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বিখ্যাত রয়েল এনফিল্ড।

রয়েল এনফিল্ড বুলেট

 

রয়েল এনফিল্ড বুলেট এর যে বাইকগুলো আসতে পারেঃ

১- Bullet 350 ( রয়েল এনফিল্ড বুলেট ৩৫০ )

বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছে 346 CC ইঞ্জিন, ইঞ্জিনের ম্যাক্সিমাম পাওয়ার 20.07 PS @ 5250 rpm এবং ম্যাক্সিমাম টর্ক 28 Nm @ 4000 rpm । বাইকটির ইঞ্জিন সিংগেল সিলিন্ডার ৪ স্ট্রোক এয়ার কুলড, সাথে রয়েছে ৫ স্পীড গিয়ারবক্স। ব্রেকিং এ নিরাপত্তা দিতে বাইকটিতে রয়েছে সিংগেল চ্যানেল এবিএস, তবে পেছনে ড্রাম ব্রেক ব্যবহার করা হয়েছে। বাইকটির স্পীডোমিটার এনালগ, বাইকটির সামনে ব্যবহার করা হয়েছে Telescopic forks এবং পেছনে ব্যবহার করা হয়েছে Twin shock absorbers with 5-step adjustable preload । বাইকটির উভয় চাকা টিউবযুক্ত এবং স্পোক হুইল দেয়া হয়েছে। বাইকটির ওজন ১৯১ কেজি এবং ১৩.৫ লিটারের ফুয়েল ট্যাংক রয়েছে।

আরও পড়ুন >> রয়েল এনফিল্ড এর সকল বাইকের বর্তমান মূল্য

Bullet 350 ES

 

২- Bullet 350 ES ( রয়েল এনফিল্ড বুলেট ৩৫০ ইএস )

বাইকটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৩৪৬ সিসির এয়ার কুলড ইঞ্জিন, ইঞ্জিন থেকে ম্যাক্সিমাম 20.07 PS @ 5250 rpm পাওয়ার এবং 28 Nm @ 4000 rpm টর্ক উৎপন্ন হয়। এটি একটি ক্রুজার বাইক, বাইকটিতে সিংগেল চ্যানেল এবিএস রয়েছে। বুলেট বাইকটির ওজন ১৯১ কেজি, বাইকটির সামনে ব্যবহার করা হয়েছে Telescopic forks এবং পেছনে ব্যবহার করা হয়েছে Twin shock absorbers with 5-step adjustable preload । বাইকটির উভয় চাকা টিউবযুক্ত এবং স্পোক হুইল দেয়া হয়েছে।

রয়েল এনফিল্ড এর অনেক বাইক রয়েছে, কিন্তু Royal Enfield এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে আমরা বুলেটের দুটি মডেল সম্পর্কে জানতে পারলাম, আমরা আশাকরি ৩৫০ সিসি এর অনুমতি পাওয়ার পর আমরা এই দুটি বাইক আমাদের দেশে দেখতে পাবো।

 

 

 

 

About Ashik Mahmud

ashik.bikebd@gmail.com'

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*