বাইকে নারী পিলিয়ন থাকলে যেসব সতর্কতা অবলম্বন করা উচিৎ

পরিবারের নারী সদস্যদের নিয়ে আমাদের প্রায় বাইক রাইড করতে হয়। ছেলে পিলিয়ন নিয়ে বাইক রাইড করা অনেকের কাছে সহজ মনে হলেও নারী পিলিয়ন নিয়ে বাইক রাইড করতে অনেকেই কিছুটা আনকম্ফোর্টেবল ফিল করেন। আজ আমরা নারী পিলিয়ন নিয়ে বাইক করার সঠিক নিয়ম এবং কি করলে আপনি নারী পিলিয়ন নিয়ে রাইডের সময়ও কম্ফোর্টেবল ফিল করবেন সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

নারী পিলিয়ন

নারী পিলিয়ন থাকলে যেসব সতর্কতা অবলম্বন করা উচিৎঃ

১- সঠিক সিটিং পজিশনঃ

আমরা সবাই জানি আমাদের দেশের অধিকাংশ নারী পিলিয়ন বাইকের একপাশে পা দিয়ে বসতে অনেক বেশি কম্ফোটেবল ফিল করে। কিন্তু আপনি জানেন এটা বাইকে বসার সঠিক নিয়ম না, নারী পিলিয়ন যখন একদিকে পা দিয়ে বসে তখন আপনার বাইকটি একদিকে বেশি ভার হয়ে থাকে। এর ফলে আপনার বাইক ব্যালেন্স করা কিছুটা কষ্টকর হয়ে যায়। আপনার বাইকের নারী পিলিয়ন যদি একদিকে পা দিয়ে বসে সেক্ষেত্রে আপনি বাইক চালানোর সময় অবশ্যই খেয়াল রাখবেন আপনার বাইকটি যেনো উক্ত দিকে বেশি কাত হয়ে না যায়। এতে করে আপনার পিলিয়ন বাইক থেকে পরে যাওয়ার চাঞ্চ অনেক বেশি থাকে।

২- পিলিয়নকে আগে থেকে সতর্ক করাঃ

অনেক নারী পিলিয়ন আছেন যারা বাইকে বসে হুট হাট করে নড়াচড়া করেন, কিন্তু আপনার বাইকের গতি যদি কিছুটা বেশি থাকে আর আপনার নারী পিলিয়ন যদি নড়াচড়া করে তাহলে আপনার বাইক যে কোন মুহূর্তে দূর্ঘটনার সম্মুখীন হতে পারে।

বাইকের সাথে নিজের ব্যালেন্স বজায় রাখা

৩- বাইকের সাথে নিজের ব্যালেন্স বজায় রাখাঃ

যেসব নারী পিলিয়ন বাইকে বসে অভ্যস্ত না তারা অনেকেই বাইকের সাথে নিজের বডি ব্যালেন্স মিলাতে পারেন না। এর ফলে দেখা যায় বাইক যেদিকে কাত হয় তারা ভয়ে বিপরীত দিকে কাত হয়ে যায় এর ফলে বাইক নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার অনেক বেশি সম্ভাবনা থাকে।

আরও পড়ুন >> একা লং রাইড করার পূর্ব প্রস্তুতি এবং রাইডিং টিপস

জামার দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখা

৪- জামার দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখাঃ

নারীদের ওড়না শাড়ি এই জাতীয় কাপড় অনেক সময় বাইকের চেইন এবং চাকায় জড়িয়ে গিয়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটে, তাই আপনি যখন কোন নারী পিলিয়ন নিয়ে বাইক রাইড করবেন তখন এইদিকে অবশ্যই বিশেষভাবে খেয়াল রাখবেন। নারী পিলিয়ন যেনো তার শাড়ি ওড়না এইগুলো বাইকে বসার সময় গুছিয়ে নিয়ে বসে। আর যদি লং রাইডে যান তাহলে রাইডার এবং পিলিয়ন উভয়েই ভালোমানের সেফটি গিয়ার ব্যবহার করবেন। পিলিয়ন নারী হউক অথবা পুরুষ নিজের নিরাপত্তার পাশাপাশি তার নিরাপত্তার দিকেও বিশেষভাবে খেয়াল রাখবেন।

জামার দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখা

 

৫- ভালো মানের হেলমেট ব্যবহার করাঃ

অনেক নারী আছেন যারা ভালো মানের হেলমেট ব্যবহারের চাইতে টুপি হেলমেট ব্যবহারে বেশি আগ্রহী। কিন্তু এই জাতীয় হেলমেট আপনাকে কখনো নিরাপত্তা দিবে না। তাই নিজের নিরাপত্তার পাশাপাশি সব সময় আপনার পিলিয়নের নিরাপত্তার দিকেও লক্ষ রাখুন।

নারী পিলিয়ন নিয়ে রাইডের সময় সব সময় একটু বেশি সাবধান থাকুন। আপনি যদি নিরাপদ থাকেন তাহলেই নিরাপদ থাকবে আপনার পরিবার।

About Ashik Mahmud

ashik.bikebd@gmail.com'

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*