পাম্প থেকে পেট্রোল চুরি বোঝার উপায় এবং এর সমাধান

আমরা সবাই জানি আমাদের দেশে ফুয়েলের মান খুব বেশি ভালো না, তারপর তো তেল চুরি রয়েছে। কিন্তু আপনি জানেন কি আপনি যদি কিছু বিষয় জানেন এবং কিছু বিষয়ে সচেতন থাকেন তাহলে আপনার বাইকে ফুয়েল নেয়ার সময় ফুয়েল চুরি অনেকটা কষ্টকর।

পাম্প থেকে পেট্রোল চুরি বোঝার উপায় এবং এর সমাধান

ফুয়েল যে কোন মোটরযানের জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের মোটরযানগুলো ফুয়েলের কারনে অনেক বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। আমাদের সবার মনে একটা প্রশ্ন ঘুরপাক করে, সেটা হচ্ছে পাম্প থেকে পেট্রোল চুরি বোঝার উপায় কি? আজ আমরা এই সম্পর্কেই জানবো।

ফুয়েল পাম্পের মেশিনের ডিসপ্লের দিকে লক্ষ্য রাখাঃ

ফুয়েল পাম্পের মেশিন

আপনি যখন ফুয়েল পাম্পে ফুয়েল নিতে যান একটু লক্ষ্য করলে দেখতে পাবেন একজন আপনাকে তেল দেয়ার জন্য আসছে এবং অপরজন আপনার কাছ থেকে টাকা সংগ্রহ করতে আসছে। এই সুযোগটাকে কাজে লাগাচ্ছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা। আপনি যখন মিটারে লক্ষ্য করছেন না ঠিক এই সুযোগে পাম্পের মিটার রিসেট না করে আপনাকে পাম্পের লোক ফুয়েল দেয়া শুরু করে।

এই প্রতারণার থেকে বাঁচার উপায় কি?

উপায় খুব সহজ আপনি যখন ফুয়েল নিতে পাম্পে যাবেন ফুয়েল নেয়ার আগে ফুয়েল পাম্পে থাকা মেমেশিনটির ডিসপ্লে মিটারের দিকে লক্ষ্য রাখুন। তেল দেয়ার আগে অবশ্যই মিটারটি ০ করে নিতে বলুন এবং আপনি ভালোভাবে লক্ষ্য রাখুন।

ভিন্ন ডিজিটে ফুয়েল নেয়াঃ

সঠিক পরিমানে ফুয়েল পাওয়ার নিয়ম

আমরা সবাই জানি আমাদের দেশের অনেক পাম্পেই মিটার টিউনিং করা থাকে। এর ফলে আপনি যদি ১০০ টাকার তেল নেন তাহলে ডিসপ্লে ১০০ দেখালেও আপনি তেল পাবেন কিছুটা কম। আমরা যখন পাম্পে তেল নিতে যায় তখন অধিকাংশ মানুষ ১০০,২০০,৫০০,১০০০ টাকার তেল নিয়ে থাকি। আর এই সুযোগটাকে কাজে লাগায় সেই অসাধু ব্যবসায়ীরা। তারা আগে থেকেই চাহিদা অনুসারে থাকা ডিজিটগুলোতে টিউনিং করে রাখে।

Also Read: অকটেন নাকি পেট্রল — মোটরসাইকেলের জন্য উৎকৃষ্ট জ্বালানি কোনটি?

তাই আপনি যখন ফুয়েল নিবেন ১০০ টাকার ফুয়েল না নিয়ে ১২৫ টাকার ,২০০ টাকার ফুয়েল না নিয়ে ২১০ টাকার এই অনুপাতে ফুয়েল নিন। ঠিক একইভাবে আপনি যদি লিটারে তেল নেন সরাসরি ১ লিটার অথবা ২ লিটার না নিয়ে কিছুটা বেশি করে নিন। যদি এমনভাবে ফুয়েল নেন তাহলে আগে থেকে করে রাখা মিটার টিউনিং এর সম্মুখীন আপনি হবেন না। আপনি যদি পাম্প থেকে পেট্রোল চুরি বোঝার উপায় সম্পর্কে জানেন তখন আপনি এই বিষয়গুলোতে সচেতন থাকবেন এবং কিছুটা হলেও এই চুরির হাত থেকে রক্ষা পাবেন।

যিনি ফুয়েল দিচ্ছে তার হাতের দিকে লক্ষ্য রাখাঃ

ফুয়েল কেনার সময় লক্ষণীয়

যে মানুষটি আপনার বাইকে ফুয়েল দিচ্ছে তার হাতের দিকে লক্ষ রাখুন। লোকটি যদি ফুয়েল দেয়ার সময় বার বার হাতের বাটনটি অফ অন করে তাকে বলুন নতুন করে ফুয়েল দিতে। বার বার অফ অন করার ফলে আপনি ফুয়েল কম পাচ্ছেন। তাই ফুয়েল নেয়ার সময় লক্ষ্য করুন পাম্পের লোকটি আপনাকে একবারে ফুয়েল দিচ্ছে কিনা।

নিজে সচেতন থাকাঃ

অনেক সময় পাম্পে গিয়ে আপনি ৫০০ টাকার ফুয়েল চাইলেন, কিন্তু পাম্পের লোক আপনাকে ২০০ টাকার ফুয়েল দিয়ে থেমে গেলো। সে আবার ২০০ এর পর থেকে ফুয়েল দেয়া শুরু করলো আপনিও ৫০০ টাকার ফুয়েল পেয়ে খুশি। কিন্তু এটা প্রতারণার একটা উপায়। আপনার সাথে যদি কখনো এমনটা হয়ে থাকে তাহলে পাম্পের লোককে বলুন মিটার ০ করে নতুন করে ফুয়েল দেয়া শুরু করতে।

Best fuel pump bd

অনেক পাম্পে এখন ডিজিটাল চিপের মাধ্যমে চুরি করা হয়। চিপটি রিমোর্ট দিয়ে নিয়ন্ত্রিত। পাম্পের মধ্যে একজন লোক থাকে যিনি রিমোর্ট দিয়ে চিপটি নিয়ন্ত্রন করেন। কোন পাম্প থেকে তেল নেয়ার পর আপনার যদি মনে হয় মিটারে ঝামেলা আছে তাহলে ১ লিটারের বোতলে করে তেলটি মেপে দেখুন। সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে যে কোন পাম্প থেকে ফুয়েল নেয়ার আগে পাম্পটি সম্পর্কে ভালোভাবে জেনে নিন।

সময়ের সাথে সাথে তাল মিলিয়ে অসাধু মানুষগুলো প্রতিনিয়ত আমাদের ঠকিয়ে চলেছে। উপরোক্ত বিষয়গুলো যদি আপনি লক্ষ্য রাখেন আপনার মোটরযান থেকে তেল চুরি করা অনেকটাই কষ্টকর হয়ে যাবে। নিজে সচেতন থাকুন অন্যকে সচেতন করে তুলুন।

About Ashik Mahmud

ashik.bikebd@gmail.com'