থ্রটলার মিট এন্ড গ্রিট ট্যুরঃ ঢাকা – কাপ্তাই – ঢাকা

থ্রটলার মিট এন্ড গ্রিট রুটঃ ঢাকা -চট্রগ্রাম- রাংগামাটি-আসাম বস্তি-কাপ্তাই-চট্রগ্রাম -কুমিরা সন্দিপ-গুলিয়াখালি-ঢাকা। ক্লাব থ্রটলার গিয়েছিলাম ১৭ টি বাইক নিয়ে চিটাগাং ভ্রমনে। সাথে ছিলেন বাংলাদেশ এর বাইকিং কমিউনিটির অতি পরিচিত ক্লাব থ্রটলার এর ফাউন্ডার চকলেট বাইকার নাভিদ ইস্তিয়াক তরু ভাই, এবং আমি নুরুজ্জামান নুর, প্রান্ত খান, তানভির, মাসুদ, তন্ময়, রাইহান, সোহেল,রিদেওয়ান, রাদিফ, রনি,ম্রিদুল, নাফিয ভাই সহ মোট ২৪ জন ২২ নভেম্বর ২০১৮বৃহস্পতিবার টি এস সি থেকে রাত ১০ টায় রউনা হই চট্টগ্রাম এর উদ্দেশ্য।     আমাদের গ্রুপ সব সময় সেফটি নিয়ে কোন কম্প্রোমাইজ করিনা। তাই সব বাইকারের ফুল ফেস হেলমেট, সেফটি বুট, ও সেফটি গারড নিশ্চিত করে আমারা ট্যুর স্টার্ট করি।…

Review Overview

User Rating: 4.45 ( 2 votes)

থ্রটলার মিট এন্ড গ্রিট রুটঃ ঢাকা -চট্রগ্রাম- রাংগামাটি-আসাম বস্তি-কাপ্তাই-চট্রগ্রাম -কুমিরা সন্দিপ-গুলিয়াখালি-ঢাকা। ক্লাব থ্রটলার গিয়েছিলাম ১৭ টি বাইক নিয়ে চিটাগাং ভ্রমনে। সাথে ছিলেন বাংলাদেশ এর বাইকিং কমিউনিটির অতি পরিচিত ক্লাব থ্রটলার এর ফাউন্ডার চকলেট বাইকার নাভিদ ইস্তিয়াক তরু ভাই, এবং আমি নুরুজ্জামান নুর, প্রান্ত খান, তানভির, মাসুদ, তন্ময়, রাইহান, সোহেল,রিদেওয়ান, রাদিফ, রনি,ম্রিদুল, নাফিয ভাই সহ মোট ২৪ জন ২২ নভেম্বর ২০১৮বৃহস্পতিবার টি এস সি থেকে রাত ১০ টায় রউনা হই চট্টগ্রাম এর উদ্দেশ্য।

 

থ্রটলার মিট এন্ড গ্রিট

 

আমাদের গ্রুপ সব সময় সেফটি নিয়ে কোন কম্প্রোমাইজ করিনা। তাই সব বাইকারের ফুল ফেস হেলমেট, সেফটি বুট, ও সেফটি গারড নিশ্চিত করে আমারা ট্যুর স্টার্ট করি। রাস্তায় শীতের কারনে এবং কুয়াশার কারনে আমাদের টিম লিডার তরু ভাইয়ের নিদর্শনা অনুযায়ী নিয়ন্ত্রিত গতিতে বাইক চালিয়ে রাস্তায় হালকা বিরতি দিয়ে রাস্তায় জ্যাম এর কারনে আমরা রাত্র ১ টায় পৌছাই কুমিল্লা মিয়ামি তে সেখানে সবাই মিয়ামির বিখ্যাত ভুনা খিচুরি দিয়ে রাতের খাবার খেয়ে হালাকা রেস্ট নিয়ে রাত ২ টায় আমরা আবার ট্যুর স্টার্ট করি এবং ফেনি ফ্লাইওভার এ দারাই সেখানে আমাদের একজন বাইকার অতিরিক্ত কুয়াশার কারনে ফ্লাই ওভার এর উপর ফুটপাত এর সাথে অনাকাংখিত ভাবে এক্সিডেন্ট করে নিয়ন্ত্রিত গতি ও ফুল সেফটির কারনে বাইকারের কোন ক্ষতি হয়নি কিন্তু বাইকের কিছু সমস্যা হয়েছে। তারপর সবাই মিলে কোন রকম বাইক ঠিক করে রওনা দেই তখন রাত ৩ টা।

 

থ্রটলার মিট এন্ড গ্রিট bangladesh

 

 

এই বাইকটার কারনে পুরো টিম স্লো রাইড করে ভোর ৫ টায় আমরা পৌছাই চট্রগ্রামে সেখানে আমরা সিটি গেট এ চা খাই। আমাদের চট্রগ্রামের টিম থ্রটলার এর মেম্বাররা আমাদের জন্য অপেক্ষায় ছিল। আমরা চা খেয়ে রওনা দেই তাদের উদ্দেশ্য। তারপর ক্লাব থ্রটলার এর প্রেসিডেন্ট আলি জুয়েল ভাই, দিদার ভাই সহ ও আরো মেম্বারদের সাথে দেখা করে সবাই চলে যাই হোটেল এ সেখানে আমরা সবাই ফ্রেশ হয়ে একটু ঘুমিয়ে শুক্রবার সকাল ১০ টায় নাস্তা করে আমরা চট্টগ্রাম এ সিআরবি তে চট্রগ্রামের থ্রটলার এর মেম্বার দের সাথে আমরা সবাই একত্রিত হয়ে পরিচিত হয়ে আমরা ২৪ টা বাইক ৩ টা গ্রুপ এ বিভক্ত হয়ে রওনা হই রাংগামাটির উদ্দেশ্যে।

 

motorcycle price in bangladesh

 

 

রাংগামাটি পৌছে আমরা সেখানে জুম্মার নামাজ আদায় করে আমরা দুপুরের খাওয়া দাওয়া করে সরাসরি চলেযাই রাংগামাটি ঝুলন্ত ব্রিজ এর উদ্দেশ্যে সেখানে কিছূক্ষন সময় ঘোরাঘুরি করে তার পর আমরা রওনা দেই আসামবস্তির উদ্দেশ্যে সেখানে আমরা পৌছে কিছুক্ষন সময় আড্ডাবাজি করে আমরা আবার রওনা দেই কাপ্তাই লেক এর উদ্দেশ্যে সেখানে পৌছে আমরা কিছুক্ষন প্রাকিৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করে আমরা রওনা দেই চট্রগ্রামে হোটেল এর উদ্দেশ্যে ততক্ষণে বিকেল গরিয়ে সন্ধ্যা হয়ে গেছে। পাহাড়ি আকাবাকা রাস্তায় ফুল ফিলিংসে বাইক চালিয়ে রাত্র ৮ঃ৩০ মিনিট এ চলে আসি সিআরবি তে সেখানে টিম থ্রটলার (সিটিজি) এর পক্ষ থেকে আমদের সকলকে রাত্রি ভোজন করানো হয় ঐতিহ্যবাহি মেজ্জান এ। তারপর সবাই চলে আসি হোটেল এ আসি ততক্ষণে সবাই ক্লান্ত সবাই ফ্রেস হয়ে ঘুমিয়ে পরি।

 

bangladeshi motorcycle tour

 

 

 

শনিবারে সকালে ৫ জন বাইকারের অফিসের কাজের জন্য তারা ভোর ৫ টায় রওনা দিয়ে ঢাকা চলে আসে। তারপর আমরা হোটেল এ নাস্তা করে ১২ টায় চেক আউট করে চট্রগ্রাম এর মেম্বারদের সাথে দেখা করে রওনা হই কুমিরার উদ্দেশ্যে সেখানে পৌছে সবাই কিছুক্ষন আনন্দ করে সেখান থেকে সরাসরি রওনা হই গুলিয়াখালির উদ্দেশ্যে সেখানে পৌছতে আমদের বিকেল হয়ে যায় সেখানে কিছুক্ষন আনন্দ করতে করতে ততক্ষনে বিকেল গরিয়ে সন্ধ্যা । ততক্ষণে সবাই খুব ক্ষুধার্থ, আমরা রওনা দেই ড্রাইভার হোটেল এর উদ্দেশ্যে সেখানে পৌছাই রাত্র ৭ঃ৩০ টায় তারপর সবাই খাওয়া দাওয়া করে ৮ঃ ৩০ রওনা দেই ঢাকার উদ্দেশ্যে শিতের কারনে এবং রাস্তায় প্রচুর গাড়ির কারনে আমরা সেফলি রাইড করে বাসায় পৌছাই রাত্র ১ঃ৩০ মিনিটে।

আমাদের এই থ্রটলার মিট এন্ড গ্রিট ট্যুরে সব ধরনের সহযোগিতা ও আন্তরিকতা, আতিথিয়তার জন্য চট্রগ্রামের জুয়েল ভাই, দিদার ভাই সহ সকল কে আমাদের অন্তরের থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

 

 

লিখেছেনঃ নুরুজ্জামান নুর

 

 

 

আপনিও আমাদেরকে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠাতে পারেন। আমাদের ব্লগের মাধ্যেম আপনার বাইকের সাথে আপনার অভিজ্ঞতা সকলের সাথে শেয়ার করুন! আপনি বাংলা বা ইংরেজি, যেকোন ভাষাতেই আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ লিখতে পারবেন। মালিকানা রিভিউ কিভাবে লিখবেন তা জানার জন্য এখানে ক্লিক করুন এবং তারপরে আপনার বাইকের মালিকানা রিভিউ পাঠিয়ে দিন articles.bikebd@gmail.com – এই ইমেইল এড্রেসে।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*