থাইল্যান্ড থেকে আমদানিকৃত নতুন হোন্ডা সিবিআর১৫০আর ২০১৬

অপূর্ব ট্রেডার্স থাইল্যান্ড থেকে ২০১৫ ও ২০১৬ মডেলের হোন্ডা সিবিআর১৫০আর (সিঙ্গেল হেডলাইট) আমদানি করেছে। ভারতীয় ভার্সনগুলোর মতো এগুলোতেও একই ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে, তবে পার্থক্য শুধু রঙে। একই প্রতিষ্ঠান এর আগে বাংলাদেশে কাওয়াসাকির অফ রোড বাইক আমদানি করেছে। আমদানি করা বাইকগুলো থাইল্যান্ডে ২০১৬ মডেল হিসেবে পরিচিত, যেগুলো শুধু রঙ পরিবর্তন করা হয়েছে। এর ইঞ্জিন আগেরটিই অর্থাৎ, পিজিএম-এফআই ৪-স্ট্রোকটিই রয়েছে, যেটাতে ৬ স্পিড গিয়ারবক্স ও ডাবল ক্যামশ্যাফট আছে। নতুন বাইকটির সর্বোচ্চ ক্ষমতা বর্তমানে বাজারে থাকা ডুয়েল হেডলাইট ২০১৬ ভার্সনের চেয়ে বেশি। এটি সর্বোচ্চ ১৭.৩ বিএইচপি শক্তি উৎপন্ন করতে পারে ১০৫০০ আরপিএমে। তবে এই বাইকটির টর্ক আগেরটির চেয়ে কম, মাত্র ১২.৯ নিউটন…

Review Overview

User Rating: 4.5 ( 2 votes)

অপূর্ব ট্রেডার্স থাইল্যান্ড থেকে ২০১৫ ও ২০১৬ মডেলের হোন্ডা সিবিআর১৫০আর (সিঙ্গেল হেডলাইট) আমদানি করেছে। ভারতীয় ভার্সনগুলোর মতো এগুলোতেও একই ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে, তবে পার্থক্য শুধু রঙে। একই প্রতিষ্ঠান এর আগে বাংলাদেশে কাওয়াসাকির অফ রোড বাইক আমদানি করেছে।

নতুন হোন্ডা সিবিআর১৫০আর ২০১৬ থাই ভার্সন

আমদানি করা বাইকগুলো থাইল্যান্ডে ২০১৬ মডেল হিসেবে পরিচিত, যেগুলো শুধু রঙ পরিবর্তন করা হয়েছে। এর ইঞ্জিন আগেরটিই অর্থাৎ, পিজিএম-এফআই ৪-স্ট্রোকটিই রয়েছে, যেটাতে ৬ স্পিড গিয়ারবক্স ও ডাবল ক্যামশ্যাফট আছে।

নতুন বাইকটির সর্বোচ্চ ক্ষমতা বর্তমানে বাজারে থাকা ডুয়েল হেডলাইট ২০১৬ ভার্সনের চেয়ে বেশি। এটি সর্বোচ্চ ১৭.৩ বিএইচপি শক্তি উৎপন্ন করতে পারে ১০৫০০ আরপিএমে। তবে এই বাইকটির টর্ক আগেরটির চেয়ে কম, মাত্র ১২.৯ নিউটন মিটার @ ৭৫০০ আরপিএম

নতুন হোন্ডা সিবিআর১৫০আর এর দুই চাকাতেই ডিস্ক ব্রেক ও টিউবলেস টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে এবং এর পিছনে মনো সাসপেনশন রয়েছে। নতুন বাইকটির ডিজাইন ভারতীয় সিবিআর১৫০আর এর মতোই, তবে এতে সিঙ্গেল হেডলাইট লাগানো হয়েছে। তাছাড়া এতে স্প্লিট সিট থাকলেও আগের ২০১৬ ভার্সনের মতো সিটটি আলাদা করা না। ২০১৬ থাই ভার্সন সিবিআর১৫০আর এর রিমটিও রঙিন এবং বডি গ্রাফিকস আগের চেয়ে বেশি অ্যাগ্রেসিভ। অন্যদিকে ২০১৫ ভার্সনটিতে সাদা রঙের উপর স্টিকারের কাজ রয়েছে।

নতুন হোন্ডা সিবিআর১৫০আর ২০১৬ সিঙ্গেল হেডল্যাম্পবর্তমানে অপূর্ব ট্রেডার্সের কাছে নিচের কালারগুলো পাওয়া যাবে। প্রদত্ত মূল্যের সঙ্গে রেজিস্ট্রেশন ফিও অন্তর্ভুক্ত।

সাদা ও লাল : ৪,৫০,০০০ টাকা

সাদা ও নীল : ৪,৫০,০০০ টাকা

লাল-কালো, সঙ্গে সোনালি রিম : ৪,৬০,০০০ টাকা

আগেই বলে রাখছি, এসব বাইকের সঙ্গে কিন্তু কোনো ইঞ্জিন ওয়ারেন্টিফ্রি সার্ভিস সুবিধা পাবেন না। পাশাপাশি অপূর্ব ট্রেডার্স আপনাকে ক্রয়কৃত বাইকের জন্য কোনো খুচরা যন্ত্রাংশ সরবরাহ করতেও বাধ্য থাকবে না। তবে তাদেরকে কোনো খুচরা যন্ত্রাংশের এনে দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানালে তারা তা আমদানি করে এনে দিতে পারেন।

নতুন হোন্ডা সিবিআর১৫০আর ২০১৬ থাই ভার্সনের স্পেসিফিকেশন

নতুন হোন্ডা সিবিআর১৫০আর ২০১৬ থাই ভার্সনের স্পেসিফিকেশন

কোডসিবিআর১৫০আরজি টিএইচ
ইঞ্জিনফুয়েল ইঞ্জেকশন সিস্টেম পিজিএম-এফআই ৪-স্ট্রোক/ ডাবল ওভারহেড ক্যামশ্যাফট, ওয়াটার কুলড
ডিসপ্লেসমেন্ট১৪৯.৪
বোর X স্ট্রোক৬৩.৫ x ৪৭.২
কম্প্রেশন রেশিও১১:০১
ক্লাচওয়েট মাল্টি-প্লেট ক্লাচ ওভারহেড
ট্রান্সমিশন৬ স্পিড
ইগনিশনডিজিটাল ট্রানজিস্টরাইজড
স্টার্টইলেকট্রিকাল
আয়তন : দৈর্ঘ্য x প্রস্থ x উচ্চতা১৯৭৭  x ৬৯৫ x ১১৩০
হুইলবেজ১৩১০
ভূমি থেকে উচ্চতা১৮৫
সিটের উচ্চতা৭৯৩
ল্যাংকাস্টার / লঙ ট্রেইল২৫ ° ০০ ‘/ ৯০ মিমি
জ্বালানি ধারণক্ষমতা১৩.১ লিটার
ফ্রেমটুইন ডায়মন্ড
সাসপেনশন (সামনে)টেলিস্কোপিক
সাসপেনশন (পিছনে)মনোশক
ওজন১৩৮ কেজি
ব্রেক (সামনে)ডুয়েল পিস্টন ডিস্ক
ব্রেক (পিচনে) ডিস্ক
চাকাঅ্যালয়
টায়ার (সামনে)১০০/৮০-১৭ এম/সি ৫২পি সিরিজের স্টেইনলেস স্টিল টিউব
টায়ার (পিছনে)১৩০/৭০-১৭ এম/সি ৬২পি সিরিজের স্টেইনলেস স্টিল টিউব
জ্বালানিসিসামুক্ত গ্যাসোলিন, অকটেন ৯৫ বা ৯১ এর সেঙ্গ সর্বোচ্চ ২০% পর্যন্ত ইথানল

অপূর্ব ট্রেডার্স

সড়ক : ২, বাড়ি : ই/২৩, ব্লক-ডি

বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা

ঢাকা

হটলাইন : ০১৭৫৭ ৯১৭ ৭৬৬

 

About শুভ্র সেন

সবাইকে শুভেচ্ছা । আমি শুভ্র,একজন বাইকপ্রেমী । ছোটবেলা থেকেই মোটরসাইকেলের প্রতি আমার তীব্র আগ্রহ রয়েছে । যখন আমি আমার বাড়ির আশেপাশে কোন মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের শব্দ শুনতে পেতাম, আমি তৎক্ষণাৎ মোটরসাইকেলটি দেখার জন্য ছুটে যেতাম ।২ বছর ধরে গবেষণা ও পরিকল্পনার পর আমি এই ব্লগটি তৈরী করি । আমার লক্ষ্য হল বাইক ও বাইক চালানো সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেয়া । সবসময় নিরাপদে বাইক চালান । আপনার বাইক চালানো শুভ হোক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*