টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও ফিচার রিভিউ – বাইকবিডি

বাংলাদেশের স্পোর্টস মোটরসাইকেল প্রেমিকদের সংখ্যা বেড়েছে।আর তাই মোটরসাইকেল কোম্পানি গুলো তাদের বেস্ট কালেকশন নিয়ে আসছে। স্পোর্টস সেগমেন্টে টারো একটি নতুন নাম। এই বাইকটি চায়না থেকে ইমপোর্ট করা হবে। টারো লিফান কেপিআর ১৫০ কে চ্যালেন্জ করবে বলে আশা করা যায়। টারো বাংলা তাদের জনপ্রিয় টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও ইমপোর্ট করতে যাচ্ছে। টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও ১৫০ সিসি সেগমেন্টের স্পোর্টস মোটরসাইকেল। এর ডিজাইন ও স্টাইল এই বাইকটিকে দিয়েছে আরো এগ্রেসিভ লুক। মাথা থেকে শুরু করে এর শেষ পর্যন্ত ফিনিশিং টা অসাধারন। প্রথম দেখাতেই যে কেউ এই মোটরসাইকেলের প্রেমে পরে যাবে। এর ডিজাইন এ স্টাইল সবমিলিয়ে খুবই আকর্ষনীয়। এর প্রথম দেখাতেই এর লুকস…

Review Overview

User Rating: 2.53 ( 3 votes)

বাংলাদেশের স্পোর্টস মোটরসাইকেল প্রেমিকদের সংখ্যা বেড়েছে।আর তাই মোটরসাইকেল কোম্পানি গুলো তাদের বেস্ট কালেকশন নিয়ে আসছে। স্পোর্টস সেগমেন্টে টারো একটি নতুন নাম। এই বাইকটি চায়না থেকে ইমপোর্ট করা হবে। টারো লিফান কেপিআর ১৫০ কে চ্যালেন্জ করবে বলে আশা করা যায়। টারো বাংলা তাদের জনপ্রিয় টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও ইমপোর্ট করতে যাচ্ছে।

taro gp in bangladesh টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও

টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও ১৫০ সিসি সেগমেন্টের স্পোর্টস মোটরসাইকেল। এর ডিজাইন ও স্টাইল এই বাইকটিকে দিয়েছে আরো এগ্রেসিভ লুক। মাথা থেকে শুরু করে এর শেষ পর্যন্ত ফিনিশিং টা অসাধারন। প্রথম দেখাতেই যে কেউ এই মোটরসাইকেলের প্রেমে পরে যাবে। এর ডিজাইন এ স্টাইল সবমিলিয়ে খুবই আকর্ষনীয়। এর প্রথম দেখাতেই এর লুকস সবাইকে ইমপ্রেস করে দিবে।
taro gp one valerio price
টারো জিপি ওয়ান ভেলারিও ১৫০সিসি সেগমেন্টের একটি স্পোর্টস মোটরসাইকেল। এই মোটরসাইকেলে রয়েছে চার স্ট্রোক বিশিষ্ট  সিঙ্গেল সিলিন্ডার ,ওয়াটার কুলড  ,ক্যামশ্যাফট ওভারহেড ইঞ্জিন। এই ইন্জিন দ্বারা ১৬.০ বি এইচ পি @ ৮০০০ আরপিএম  পাওয়ার এবং ১৪.৭ এন এম  @ ৭০০০ আরপিএম টর্ক  উৎপন্ন হয়। ইন্জিনটি  এফ আই (ফুয়েল ইঞ্জেকশন) ফুয়েল সিস্টেমে এবং মোটরসাইকেল ইলেকট্রিক সিস্টেমে পরিচালিত হয়। ইন্জিনের বোর ও স্ট্রোক যথাক্রমে ৫৮.৫ এমএম ও ৫৮.৮ এমএম। ইন্জিনের কম্প্রেশন হল ১০:৭:১।
taro gp one engine
টারো জিপি ওয়ান ভেলেরিও তে যুক্ত করা হয়েছে নতুন সাসপেনশন। সামনে রয়েছে পজিটিভ শক এবজরভার এবং পিছনে রয়েছে একটি মনোশক সাসপেনশন যাকে সিঙ্গেল গ্যাস এবজরভারও  বলে। এতে রয়েছে আপফ্রন্ট এল ই ডি  প্রজেকশন হেডলাইট। এই মোটরসাইকেলে সামনের চাকায় যুক্ত করা হয়েছে  ডুয়েল হাইড্রোলিক ডিস্ক ব্রেক যার প্রতিটির ডায়মেনশন ৩০০ মিঃমিঃ এবং পিছনের চাকায় রয়েছে  ২৪০ মিঃ মিঃ  ডিস্ক ব্রেক । এই বাইকের ব্রেকিং সিস্টেমে যুক্ত করা হয়েছে স্ট্যান্ডার্ড সি বি এস (কম্বাইন্ড ব্রেকিং সিস্টেম) যা ব্রেকিং এ এনে দিবে এক অন্যরকম অনুভূতি।
taro gp one suspension
যদি এই স্পোর্টস মোটরসাইকেলের টায়ারের কথায় আসি তাহলে দেখা যায় এর টায়ারগুলো বেশ প্রশস্ত। সামনের টায়ারের সাইজ ১১০/৭০-১৭ এবং  পিছনের  টায়ারের সাইজ হচ্ছে ১৫০/৭০-১৭। উভয়ই চাকায় টিউবলেস টায়ার ব্যাবহার করা হয়েছে। এই বাইকে ব্যাবহার করা হয়েছে ১৭ ইঞ্চি বিশিষ্ট ৫ স্পোক হুইল ।এছাড়াও এতে রয়েছে একটি বড় ফুয়েল ট্যাংক যাতে ১৩.৫ লিটার ফুয়েল ধরে রাখার ক্ষমতা আছে। এই মোটরসাইকেলের ওজন প্রায় ১৫০ কেজি।

>>Taro GP One Valerio Sport Specification, Price In Bangladesh, Review<<

taro gp price in bangladesh
টারো জিপি ওয়ান বাইকটিতে রয়েছে ফুল ইন্সট্রমেন্টাল প্যানেল।এ র আছে ডিজিটাল স্পিওমিটার ও এনালগ টেকোমিটার, ডিজিটাল ক্লক, ডিজিটাল  গিয়ার ডিসপ্লে এবং ফু্য়েল গজ। কোম্পানির দাবি অনুসারে শহরের ভেতরে এই বাইকের মাইলেজ হচ্ছে ৪৫ কিঃ মিঃ/লিঃ এবং হাইওয়েতে মাইলেজ হচ্ছে ৪৫ কিঃ মিঃ/লিঃ। কোম্পানির মতামত অনুযায়ী এর সর্ব্বোচ্চ গতি হচ্ছে ১৪০ কিঃ মিঃ/ঘঃ।
taro gp speedometer
মোটকথা এটি হলো একটি এগ্রেসিভ মোটরসাইকেল। এর লুক এবং ডিজাইন দেখে মনে হয় এটি রেস করার করার জন্য সবসময় তৈরি। সময় বলে দিবে বাংলাদেশ মার্কেটে এই বাইক কি প্রভাব ফেলবে। তরুণদের সকল ডিমাণ্ড এই বাইক পূরণ করতে পারবে বলে আশা করা যায়। এই মোটরসাইকেলের মূল্য হচ্ছে ২,৯৯,০০০ টাকা । নিরাপদে থাকুন , এবং বাইক চালানোর সময় হেলমেট ব্যবহার করুন।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*