বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল

বাংলাদেশের মোটরসাইকেল ইন্ডাস্ট্রিতে ১২৫ সিসি সেগমেন্ট এর মোটরসাইকেলের খুব বড় ভূমিকা রেখেছে। এই সেগমেন্টটি সাধারণত কমিউটার সেগমেন্টেড এবং বর্তমানে ১২৫সিসি এর মোটরসাইকেল গুলো আমাদের দেশের মার্কেট জুড়ে রয়েছে। সেই অনুসারে এখানে আমরা বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল নিয়ে আলোচনা করব। বর্তমানে বেশির ভাগ মোটরসাইকেল কোম্পানি বাংলাদেশে তাদের ১২৫সিসি সেগমেন্টের মোটরসাইকেল গুলো বাংলাদেশে নিয়ে আসছে। ১২৫ সিসি মোটরসাইকেল বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়। কারন বাইক গুলোর প্রাইস ট্যাগ, ফুয়েল ইকোনমি, লো মেইন্ট্যান্স খরচ এর জন্য এই বাইক গুলো উপযুক্ত । এই মোটরসাইকেল গুলো ভাল রেঞ্জ এর পাওয়ার ও পার্ফমেন্স দেয়। তাছাড়া প্রতিদিনের কমিউটিং এর জন্য বাইক গুলো অসাধারন। তবে সকল কাস্টমাদের চাহিদার…

Review Overview

User Rating: 2.13 ( 2 votes)

বাংলাদেশের মোটরসাইকেল ইন্ডাস্ট্রিতে ১২৫ সিসি সেগমেন্ট এর মোটরসাইকেলের খুব বড় ভূমিকা রেখেছে। এই সেগমেন্টটি সাধারণত কমিউটার সেগমেন্টেড এবং বর্তমানে ১২৫সিসি এর মোটরসাইকেল গুলো আমাদের দেশের মার্কেট জুড়ে রয়েছে। সেই অনুসারে এখানে আমরা বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল নিয়ে আলোচনা করব।

top 125cc for motorcycle 2018 in bangladesh টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল

বর্তমানে বেশির ভাগ মোটরসাইকেল কোম্পানি বাংলাদেশে তাদের ১২৫সিসি সেগমেন্টের মোটরসাইকেল গুলো বাংলাদেশে নিয়ে আসছে। ১২৫ সিসি মোটরসাইকেল বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়। কারন বাইক গুলোর প্রাইস ট্যাগ, ফুয়েল ইকোনমি, লো মেইন্ট্যান্স খরচ এর জন্য এই বাইক গুলো উপযুক্ত । এই মোটরসাইকেল গুলো ভাল রেঞ্জ এর পাওয়ার ও পার্ফমেন্স দেয়। তাছাড়া প্রতিদিনের কমিউটিং এর জন্য বাইক গুলো অসাধারন।

তবে সকল কাস্টমাদের চাহিদার উপর নির্ভর করে এই সেগমেন্ট এর মোটরসাইকেল গুলোকে আরো উন্নত ফিচারস সমৃদ্ধ করা উচিত অন্য সেগমেন্টের এর বাইকের তুলনায়। অতএব চলুন শুরু করা যাক এর বিষয়ে কিছু কথা।

honda cb shine vs yamaha saluto 125cc

বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল – ইয়ামাহা সালুটো ১২৫ বনাম হোন্ডা সিবি শাইন

সর্বপ্রথম আমরা এই দুইটা ১২৫সিসি মোটরসাইকেল তুলে ধরেছি যে বাইক গুলো চমৎকার পার্ফমেন্স দিয়েছে গত বছর। খুশির বিষয় এটা যে এই দুটি ই মোটরসাইকেল আমাদের তালিকার টপ স্থান অধিকার করেছে। সুতরাং আমাদের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল এর মধ্যে হল ইয়ামাহা সালুটো ১২৫ ও হোন্ডা সিবি শাইন। আমরা আশা করিছ যে এভাবে বছর এর পর বছর বাইক গুলো আমাদের ভাল সার্ভিস দিয়ে যাবে।

>> Click For The Latest Price Of Yamaha Saluto 125 <<

লুকস, ডিজাইন, এবং পার্ফমেন্স এর দিক দিয়ে সালুটো এবং সিবি শাইন দুটি বাইক ই খুবই ভাল। একটি ভাল মোটরসাইকেল থেকে আপনি যা আশা করেন তার সবই পাবেন এই দুইটা মোটরসাইকেল থেকে। এখানে দুটি বাইকের বডি প্যানেল, গ্রাফিক্স ও ডিজাইন খুব সুন্দরভাবে করা হয়েছে।

আবারও দুটি বাইক ই নামকরা কোম্পানির ইঞ্জিন রয়েছে। এগুলো গ্রামের রাস্তা বা ভাঙ্গা রাস্তাই চালানোর মত খুবই আরামদায়ক। দুটি মোটরসাইকেলের মেইন্টেস খরচ কম এবং দুটি বাইকের মাইলেজ ভাল।

>> Latest Price OF Honda CB Shine 125cc <<

সব কিছুর দিক বিবেচনা করে আমরা ইয়ামাহা সালুটো বনাম হোন্ডা সিবি শাইন বিষয়ে কিছুটা ধরার চেষ্টা করেছি। এখানে ইয়ামাহা সালুটো মাইলেজ ফিগার তুলনামুলক বেশি এবং হোন্ডা সিবি শাইন এর ইঞ্জিন ভাল পাওয়ার দিতে সক্ষম। আরো বিস্তারিত তথ্যর জন্য আপনি ইয়ামাহা সালুটো বনাম হোন্ডা সিবি শাইন পার্থক্য এর রিভিউ দেখে নিন।

bajaj discover 125 vs hero glamour vs suzuki slingshot plus vs tvs stryker

বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল  – বাজাজ ডিস্কভার ১২৫ বনাম হিরো গ্ল্যামার বনাম সুজুকি স্লিংশট প্লাস বনাম টিভিএস স্ট্রাইকার

২০১৮ সালে ১২৫সিসি মোটরসাইকেল সেগমেন্টে আমরা তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রেখেছে ৪টি মোটরসাইকেল কে। তালিকায় আছে বাজাজ ডিস্কভার ১২৫, হিরো গ্ল্যামার, সুজুকি স্লিংশট প্লাস এবং টিভিএস স্ট্রাইকার। এখানকার ৪টা মোটরসাইকেল ই এসেছে নাম করা ইন্ডিয়ান কোম্পানি থেকে।

>> Bajaj Bike Price In Bangladesh 2018 <<

আপনারা জানেন যে বাজাজ ডিস্কভার ১২৫ এবং হিরো গ্ল্যামার বছর ধরে সফলতার রের্কড ধরে রেখেছে। সুজুকি স্লিংশট প্লাস ও বেশ কিছু বছর ধরে চলছে। এখানে শুধুমাত্র টিভিএস স্ট্রাইকার ১২৫ বাজারে নতুন। স্ট্রাইকার এর ইঞ্জিন এসছে টিভিএস ফিনিক্স ১২৫ থেকে তবে কিছুটা টিউনিং করা হয়েছে ।

>> Latest Price Of TVS Motorcycle Price In Bangladesh <<

তাই টিভিএস ফিনিক্স এর শ্যাডো বাইকটিতে লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু এখানে আমরা শুধু ফিনিক্স কে নির্দিষ্টভাবে মেনশন করছি না বরং ফিনিক্স ও স্ট্রাইকার দুটি বাইকের ইঞ্জিন আর ফ্রেম এক রকম। যদিও বাইকগুলা দেখতে, ডিজাইন ও স্টাইল ভিন্ন তবুও আমরা এই দুটোকে একভাবে দেখছি।

>> Hero Bike Price In Bangladesh 2018 <<

আলোচনা সাপেক্ষে আমরা আগেই জেনেছি যে বাজাজ, হিরোটিভিএস এই তিনটি কোম্পানির মধ্যে প্রতিযোগীতা চলে আসছে অনেক দিন থেকে। তারা যানবাহনের দিক দিয়ে সাউথ এশিয়া এবং নর্থ আমেরিকান দেশের বাজারে প্রতিযোগীতা করে চলেছে। এই প্রতিযোগীতায় সুজুকিও কমিউটিং সেগমেন্ট এ তাদের মোটরসাইকেলের বাজার বৃদ্ধি করছে ।

>> Suzuki Slingshot Plus Price In Bangladesh 2018 <<

সেই অনুসারে বাজাজ ডিস্কভার ১২৫, হিরো গ্ল্যামার, সুজুকি স্লিংশট এবং টিভিএস স্ট্রাইকার আমাদের মার্কেটে দারুন ভাবে প্রতিযোগীতা চলছে। অবশ্যই সব দিক দিয়ে বিবেচনা করে মোটরসাইকেল গুলোর দাম প্রায় একরকম। এই বিষয়ে আরো পরিষ্কারভাবে তথ্য পেতে হলে আপনি আমাদের রিভিউ ঘুরে আসতে পারেন।

keewaw rks 125 vs runner turbo 125

বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল – কিওয়ে আরকেএস ১২৫ বনাম রানার টার্বো ১২৫

২০১৮ সালের ১২৫সিসি মোটরসাইকেল এর তৃতীয় স্থানের তালিকায় রয়েছে ২টা মোটরসাইকেল। মোটরসাইকেল গুলো আমাদের বাজারে প্রায় নতুন এবং এটা মর্ডান কমিউটিং এর জন্য ভাল। তাই এখানে আমাদের তালিকায় রয়েছে কিওয়ে আরকেএস ১২৫ এবং রানার টার্বো ১২৫

কিওয়ে আরকেএস ১২৫ কিওয়ে এর নতুন মোটরসাইকেল। কিওয়ে এর অফিশিয়াল ডিস্ট্রিবিউটার হল স্পিডোজ লিমিটেড। মোটরসাইকেলটি দেখতে বেশ সুন্দর ও এর ডিজাইন বেশ আকর্ষনীয়। এছাড়াও এর মধ্যে কিছু মর্ডাণ ও স্পোর্টি ফিচারস দেওয়া হয়েছে। মডেলের দিক দিয়ে এটা আমাদের বাজারে অন্য মোটরসাইকেল এর তুলনায় এক ধাপ এগিয়ে।

অপর পক্ষে রানার টার্বো মোটরসাইকেল এর পরিবারে একদম নতুন। মোটরসাইকেলটি দেখতে ও ডিজাইন এর দিকে বেশ আর্কষনীয়। বাজারে ১২৫সিসি মোটরসাইকেল এর ভিতরে এটার লুকস ও স্টাইল এবং এর অডো প্যানেল বেশ মর্ডাণ।

best motorcycle for 2018 in bangladesh টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল

বাংলাদেশে ২০১৮ সালের টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল – সারকথা

অতএব পাঠকেরা এতক্ষন আলোচনা করার পরে আমরা আশা করি আপনাদের ১২৫সিসি এর সেগমেন্ট এর বিষয়ে কিছুটা ধারনা দিতে পেরেছি। বেশি আলোচনা না করে আমরা সংক্ষিপ্ত আকারে ১২৫ সিসি বাইকগুলো সর্ম্পকে তুলে ধরেছি।

অতএব আলোচনার পরে আমরা বলতে পারি যে বেশির ভাগ মোটরসাইকেল আপনার দৈনন্দিন জীবন-যাপনকে সহজ করে তুলবে। কিন্তু আমরা আপনাদের বলব যে আপনাদের পছন্দ অনুযায়ী ব্রান্ড, রেপুটেশন, ট্র্যক রেজাল্ট দেখে বাইক নেবেন।

অতএব আশা করি আপনারা আমাদের আলোচনা টপ ১২৫সিসি মোটরসাইকেল ২০১৮ ইন বাংলাদেশ পড়ে ভাল লেগেছে। সুতরাং আমাদের সাথে থাকুন আরো আলোচনা ও রিভিউ এর জন্য। ধন্যবাদ সবাইকে।

About Arif Raihan opu

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*