ছবি সহকারে মোটরসাইকেল এর সকল পার্টস ও পার্টস নাম্বার

এইটা  হলো রত্ন ভান্ডার। মোটরসাইকেল এর গোপন দলিল।  এটি থেকে হাজার ভাবে উপকৃত হবেন। স্ক্রু খোলার আগেই বলে দিতে পারবেন , কোথায় কোথায় স্ক্রু আছে, কয়টা করে আছে।  মোটরসাইকেল এর কোন অংশ খোলার পর পুনরায় লাগাতে পারবো কি পারবো না। , এই  ধারণা  পিছনে ফেলে সঠিক নিয়মে নিশ্চিন্তে লাগাতে পারবেন।

ফাইবার পার্টস, মিটার প্যানেল , ট্যাংকির সাথের স্ক্রু ,হেডলাইট , ইঞ্জিনের পিস্টন , পিস্টন রিং কয়টা , কিভাবে বসবে রিং গুলো , ঐদিকে ক্লাচ প্লেট , ক্লাচ ডিস্ক , ক্লাচ বস , ওপরে ক্যাম শাফট , টাইমিং চেইন , সারা বডিতে ছোট বড় একশ একটা নাট -বোল্ট ছড়ানো ছিটানো সবকিছু আপনার চোখে ভাসতে থাকবে। নলেজে চলে আসবে।  একটার বোল্ট আরেকটার নাটে গুলানোর কোন দরকার নাই। মেকানিক ভাইরা লক্ষ্য করেন। ইঞ্জিনের কাছে কান লাগিয়ে ,হাতের স্পর্শে অনুভব করে , চোখের আন্দাজে ইঞ্জিন সেটআপ টিউনিং করার দিন শেষ। যেই কাজের যেই টুলস সেটা ব্যবহার করে কাজটি করুন। ইঞ্জিন লাইফ বাড়বে। হাতুড়ি কখনোই না।  দেখা গেসে নতুন সিলিন্ডার, পিস্টন , পিস্টন রিং , ভাল্ভস, ক্লাচ প্লেট , প্রেসার প্লেট সেট সবকিছু  নতুন লাগাই দিলেও  কাজ নাও করতে  পারে।  এক্ষেত্রে  সঠিক ভাবে পার্টস গুলো সেটআপ করা গুরুত্যপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

মোটরসাইকেল এর সকল পার্টস এর একটা ( আইটেম কোড ) পার্টস  নাম্বার থাকে। এশিয়া , আফ্রিকা , সাউথ আমেরিকা সবখানেই ঐ একটা নাম্বারে সেইম পার্টস পাবেন।  বাংলাদেশেও তাই। পিছনের চাকার বিয়ারিং এর পার্ট নাম্বার কাগজে টুকে রেখে তেজগাঁও ইয়ামাহা তে , বাজাজ হলে উত্তরা বাজাজ পার্টস সেকশন তেজগাঁও থেকে , টিভিএস হলে তেজগাঁও টিভিএস থেকে অথেনটিক জেনুইন পার্টস সংগ্রহ করতে পারবেন।

  • ভালভ ক্লিয়ারেন্স এডজাস্ট করার জন্য ফিলার গজ ব্যবহার করুন। নবাবপুরে ৩০০-৫০০ টাকায় পাওয়া যায়।  তার আগে আপনার মোটরসাইকেল এর ইনটেক এক্সহস্ট ক্লিয়ারেন্স কত এমএম বের করুন।  আরেকটা হল ভার্নিয়ার কেলিপার এটাও নবাবপুরে ৫০০-৮০০ টাকায় পাবেন। বিভিন্ন রকমের সুক্ষ দূরত্ব মাপতে কাজে লাগে। যে কোন কাজ শুরুর আগে সবগুলা টুলস সাথে আছে নিশ্চিত করুন।
    ইয়ামাহা ফেজার মোটরসাইকেল উদাহরণ হিসেবে নিলাম যাতে বাকি সব ক্ষেত্রে  একই ধারণা পান।

 

motorcycle parts catalogueউপরের ছবিতে এফজি / ফেজার এর ভালভস , ভালভ স্টেম , স্প্রিং প্রভৃতি পার্টস দেখা যাচ্ছে।  ১ নং পার্টস হলো ভালভ ইনটেক , ২ নং পার্টস হলো ভালভ এক্সহস্ট।
পার্টস নম্বর হলো ১ এর 54B-E2111-10
এবং ২ এর 54B-E2121-10.
আমার হাতে দুটো নতুন ইনটেক ও এক্সহস্ট ভালভ আছে। পার্ট নাম্বার মিলিয়ে  দেখেন সেইম তো সেইম।
parts part number

  • ডাউনলোড লিংক :

bajaj boxer 100 blue colour

 

bajaj city 100 red colour

 

bajaj discover 100

 

 

bajaj discover 135 black and blue

 

 

bajaj discover 150s black

 

 

bajaj platina 125 blue colour

 

bajaj platine blue colour

 

bajaj pulsar ls 135 red colour

 

bajaj pulsar 150 black colour

 

bajaj xcd 125 red

 

 

hero hunk 150 full view

 

hero passion pro red colour

 

hero splendor pro full view

 

honda cb 150r red colour

 

honda cbr 150r black colour

 

honda cbr 150r indonesia

 

tvs apache rtr 150 black and green

 

yamaha fazer v1 black

 

yamaha fz v1 white colour

 

yamaha mt 15 blue colour

 

yamaha r15 v2 black colour

 

yamaha r15 v2 red colour

suzuki gixxer sf blue colour

অনেক প্রতীক্ষার , অনেক রিকোয়েস্ট এর সুজুকি জিক্সার পার্টস ক্যাটালগ

Suzuki Gixxer SF 2015  Model Parts Catalogue

 

 

হ্যাপি রাইডিং।  #dux #priyo nil akash

About শুভ্র সেন

সবাইকে শুভেচ্ছা । আমি শুভ্র,একজন বাইকপ্রেমী । ছোটবেলা থেকেই মোটরসাইকেলের প্রতি আমার তীব্র আগ্রহ রয়েছে । যখন আমি আমার বাড়ির আশেপাশে কোন মোটরসাইকেলের ইঞ্জিনের শব্দ শুনতে পেতাম, আমি তৎক্ষণাৎ মোটরসাইকেলটি দেখার জন্য ছুটে যেতাম ।২ বছর ধরে গবেষণা ও পরিকল্পনার পর আমি এই ব্লগটি তৈরী করি । আমার লক্ষ্য হল বাইক ও বাইক চালানো সম্পর্কে বাংলাদেশের মানুষের কাছে সঠিক তথ্য পৌঁছে দেয়া । সবসময় নিরাপদে বাইক চালান । আপনার বাইক চালানো শুভ হোক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*