ঘরে বসে লার্নারের জন্য আবেদন করুন -বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ

ঘরে বসে লার্নারের জন্য আবেদন করুন – বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ চালু করেছে তাদের সার্ভিস পোর্টাল। এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই ঘরে বসে আপনার মোটরযান সংক্রান্ত অনেক সমস্যার সমাধান করতে পারবেন। এখন আপনি চাইলে ঘরে বসে লার্নার বা শিক্ষানবিশ লাইসেন্স করে ফেলতে পারবেন। অনলাইনে লার্নারের জন্য আবেদন করতে হলে আপনাকে সবার প্রথমে বিআরটিএ এর সার্ভিস পোর্টালে প্রবেশ করতে হবে।

ঘরে বসে লার্নারের জন্য আবেদন করুন -বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ

Welcome to BRTA Service Portal

তারপর আপনাকে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার জন্য আপনার নাম ,জন্মতারিখ , ন্যাশনাল আইডি নম্বর , মোবাইল নম্বর , ইমেইল এবং একটি পাসওয়ার্ড সেট করুন। তারপর অপশনে ক্লিক করুন। এরপর আপনার মোবাইল নম্বরে একটা কোড যাবে, উক্ত কোড দিয়ে ভেরিফিকেশন করতে হবে।

লার্নার লাইসেন্স পাওয়ার জন্য কিছু নির্দেশনা

আপনার সুবিধার জন্য আপনি চাইলে এই সাইটটি বাংলায় ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন। সফলভাবে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার পর ড্রাইভিং লাইসেন্স অপশনে ক্লিক করুন,এরপর শিক্ষানবিশ লাইসেন্সের জন্য আবেদন অপশনে ক্লিক করুন। এরপর আপনাকে লার্নার লাইসেন্স পাওয়ার জন্য কিছু নির্দেশনা দেয়া হবে, সব কিছু চেক করে ওকে অপশনে ক্লিক করুন।

লার্নার করাতে চান

আপনি কোন ধরনের লাইসেন্স করতে চান সেটা নির্বাচন করুন। তারপর পর্যায়ক্রমে আপনার নাম,পিতার নাম, মাতার নাম সহ অন্যান্য সব তথ্য দিয়ে ফরমটি পূরন করুন। এই ক্ষেত্রে আপনার নাম ঠিকানা সব কিছুই অবশ্যই আপনার জাতীয় পরিচয় পত্রের সাথে মিলতে হবে।

আপনি যদি শুধুমাত্র মোটরসাইকেলের জন্য লার্নার করাতে চান তাহলে আপনাকে ৩৪৫ টাকা জমা দিতে হবে, এবং আপনি যদি মোটরসাইকেল এবং প্রাইভেট কার এবং বাইক উভয়ের জন্য লার্নার করাতে চান তাহলে আপনাকে ৫১৮ টাকা জমা দিতে হবে। আপনি চাইলে আপনার সুবিধামতো এলাকার বিআরটিএ থেকে পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেন। এর জন্য আপনাকে এলাকা নির্ধারন করে দিতে হবে।

ফরমটি পূরণ করা হয়ে গেলে মেডিকেল সার্টিফিকেট, জাতীয় পরিচয় পত্র,ইউটিলিটি বিলের ছবি আপলোড করুন। মেডিকেল সার্টিফিকেটের ছবি আপলোড করার আগে তা অবশ্যই সত্যায়িত করিয়ে নিতে হবে। এরপর সংরক্ষন অপশনে ক্লিক করুন। সব কিছু সঠিকভাবে সম্পন্ন করলে আপনি পেমেন্টের অপশন পাবেন। পেমেন্ট আপনি অনলাইনে করতে পারেন। পেমেন্ট সফলভাবে সম্পন্ন হলে সাকসেসফুল লেখা আসবে। এরপর প্রিন্ট করে নিলে হয়ে গেলো আপনার লার্নার কার্ড।

About Ashik Mahmud

ashik.bikebd@gmail.com'

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*