কিওয়ে আরকেআর১৬৫ ফিচার রিভিউ – স্পোর্টস এক্সাইটমেন্ট

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ ফিচার রিভিউ। কিওয়ে আরকেআর১৬৫ কিওয়ে বাংলাদেশের বাজারজাতকৃত চমৎকার ফিচারের একটি স্পোর্টসবাইক। মোটরসাইকেলটিতে বেশকিছু স্পোর্টি ও প্রতিযোগিতামুলক ফিচারের সমন্বয় করা হয়েছে।  আর তাই এর ফিচারগুলো আলোচনার জন্যই আমাদের আজকের আয়োজন। চলুন তবে নতুন এই মোটরসাইকেলটির একটি বিশদ চিত্র পাওয়ার চেষ্টা করি।

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ ফিচার রিভিউ

কিওয়ে আরকেআর১৬৫স্পোর্টস এক্সাইটমেন্ট

নতুন কিওয়ে আরকেআর১৬৫ মূলত: কিওয়ে বাংলাদশের মডেল সারিতে নতুন একটি সংযোজন। এটিই বর্তমানে বাংলাদেশের বাজারে তাদের একমাত্র স্পোর্টস মডেল। আর এই একই মডেল ভিন্ন ইঞ্জিন ক্ষমতাসহ বিশ্বের বিভিন্ন বাজারে চলমান রয়েছে। সুতরাং মডেলটিতে আধুনিক  স্ট্রিট-স্পোর্ট লুক, ডিজাইন ও ইরগনোমিক্সের সমন্বয় করা হয়েছে।

আরকেআর১৬৫ ফুল্লি-ফেয়ারিংসহ একটি স্পোর্টস মডেল। বাইকটির সামনের দিকটি বেশ তীক্ষ্ণ ফক্স-আই ডাবল-পিট হেডল্যাম্প অ্যাসেমব্লীসহ পুরোপুরি এ্যারোডাইনামিক ডিজাইনের। আর এতে বেশ চমৎকার ও স্পোর্টি ডিজাইনের উইন্ডশীল্ডের সাথে সামনের দিকটা বর্ধিত করা হয়েছে। বাইকটির ককপিটটিতে দেয়া হয়েছে একটি ডিজিটাল-অ্যানালগ কম্বো-ইউনিট। এর রেভ-কাউন্টারটি অ্যানালগ, আর ডিসপ্লেটি অনেকগুলি প্যারামিটারসহ সম্পূর্ণ ডিজিটাল।

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ ফিচার রিভিউ

বাইকটির ফুয়েলট্যাঙ্কটি বড় স্পোর্টবাইকগুলোর মতোই চমৎকার কার্ভযুক্ত। আর সাইড-প্যানেলগুলো চমৎকার স্পোর্টি এয়ার-ভেন্ট দিয়ে ডিজাইন করা। এছাড়াও এর হ্যান্ডেলবারের দিকের ফেয়ারিং প্যানেল বেশ সুপরিসর। আর স্পোর্টি ক্লিপ-অন হ্যান্ডেলবারটি একই সেগমেন্টর অন্যান্য বাইকের তুলনায় কিছুটা উঁচুতে বসানো।  সুতরাং স্প্লিট-সিট নিয়েও এটি আরামদায়ক রাইডিংয়ের সুবিধা দিতে পারে, যা অনেকের কাছে আপরাইট রাইডিংয়ের মতোই মনে হতে পারে।

আরকেআর১৬৫ বাইকটির বিকিনি টেইলটি বেশ কমপ্যাক্ট। এটিতে কমপ্যাক্ট রিয়ার সিট, সুচালো গ্র্যাব-রেইল, স্লিক টেল-ল্যাম্প এবং সলিড রেজিস্ট্রেশন-প্লেট হ্যাঙ্গার দেয়া হয়েছে। এছাড়াও এর এ্যালয় রিমসহ এর হুইলগুলি সুন্দরভাবে ডিজাইন করা। আর এর একজষ্টটি অনেকটাই হালকা একটি ইউনিট। তবে বডি প্যানেলগুলি চমৎকারভাবে মাল্টি-লেয়ারড, স্লাইসড, শার্পার ও কোনাকার। সামগ্রিকভাবে, এটি একটি চমৎকার এ্যারোডাইনামিক ডিজাইন সমন্বয় করেছে যা দেখতেও সুন্দর।

ফ্রেম, হুইল, ব্রেক, সাসপেনশন  সিস্টেম

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ একটি আর্চ-বার-ট্রাক ফ্রেমে নির্মিত। হুইল, ব্রেক ও সাসপেনশন সিস্টেমে এটি বেশ প্রতিযোগিতামূলক বৈশিষ্ট্যযুক্ত। এর হুইলগুলি স্পোর্টস এ্যালয়-রিম ও টিউবলেস টায়ারযুক্ত।  টায়ারগুলি যথেষ্ট চওড়া প্রফাইলের, যা বেটার স্ট্রিট-পারফর্মেন্স ও ফুয়েল ইকোনমি নিশ্চিত করতে পারে।

বাইকটির দুই চাকাতেই রয়েছে হাইড্রোলিক-ডিস্ক টাইপ ব্রেক। এর সামনের ডিস্কটি 260মিমি এবং পেছনে রয়েছে 220মিমি ডিস্ক। এর সাসপেনশন সিস্টেমে সামনের দিকে রয়েছে প্রচলিত আপরাইট টেলিস্কোপিক-ফর্ক সাসপেনশন, আর পেছনে রয়েছে মনো সাসপেনশন। তবে পেছনের  সাসপেনশনটি কয়েল-স্প্রিং লোডেড অয়েল-ডাম্পড যা কয়েক স্টেপে এ্যাডজাস্টেবল।

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ ফিচার রিভিউ

হ্যান্ডেলিং এন্ড রাইডিং ফিচার

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ মূলত: স্ট্রিট-স্পোর্ট সেগমেন্টের বাইক হিসেবে ডিজাইন করা। সুতরাং বাইকটিতে স্পোর্টস রাইডিং মোড ও ইরগনোমিক্স দেয়া হয়েছে। এতে ভিন্ন উচ্চতার স্পোর্টি-স্প্লিট সিট ও ক্লিপ-অন হ্যান্ডেলবার দেয়া হয়েছে। তবে সেটিংয়ের ভিন্নতার কারনে এর রাইডিং মোডটি খুব এ্যাগ্রেসিভ নয়। কেননা হ্যান্ডেলবারটি তুলনামূলকভাবে কিছুটা উচ্চতর অবস্থানে বসানো হয়েছে।

এছাড়া বাইকটির স্টিয়ারিং ম্যানুয়েভারিং এরিয়া ও তৎসংলগ্ন বডি প্যানেল অনেকটাই প্রশস্ত। সুতরাং, বাইকটি তুলনামূলক অনেকটাই স্বাচ্ছন্দ্যে চালানোর অভিজ্ঞতা দিতে পারে। আর এছাড়াও বাইকটির সামনের 112মিমি স্ট্রোক ও পেছনের 43মিমি স্ট্রোক আরামদায়ক রাইডিং নিশ্চিত করতে পারে। সেইসাথে এর 160মিমি গ্রাউন্ড-ক্লিয়ারেন্সসহ সবমিলিয়ে এটিকে একটি ব্যালান্সড প্যাক হওয়ারই প্রতিশ্রুতি দেয়।

বাইকটির অন্যান্য বৈশিষ্ট্যগুলি, যেমন হুইল এবং ব্রেক সেটআপটিতেও বেশ প্রতিযোগিতামূলক কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। এর ব্রেকিং সিবিএস ফিচারযুক্ত। ফলে তা সাধারণভাবে নিরাপদ ব্রেকিংয়ে সহায়তা করে। তবে বাইকটির 153কেজির ওজন কিছু চালকদের পক্ষে হ্যান্ডেলিংয়ে কিছুটা বিরুপ অভিজ্ঞতা দিতে পারে। তবে 15 লিটার ধারণক্ষমতার ফুয়েল ট্যাঙ্ক নি:সন্দেহে দীর্ঘ দূরত্বের রাইডে  বাড়তি সুবিধা দেবে।

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ইঞ্জিন ফিচার

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ বাইকটিতে রয়েছে একটি 164.7সিসি ধারণক্ষমতার শক্তিশালী ইঞ্জিন। এটি একটি সিঙ্গেল-সিলিন্ডার, ফোর-স্ট্রোক, লিকুইড-কুলড ইঞ্জিন। ইঞ্জিনটি 4-ভালভ ও ইলেকট্রনিক ফুয়েল-ইনজেকশন সিস্টেমযুক্ত। আর এতে রয়েছে রিটার্ন টাইপ 6-স্পিড গিয়ার ট্রান্সমিশন। সেইসাথে এতে রয়েছে ইলেকট্রিক স্টার্ট সিস্টেম।

পাওয়ার ও পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে এই ইঞ্জিনটিতে রয়েছে সর্বোচ্চ 13.3kw বা 18.08PS পাওয়ার এবং 14.0NM টর্ক। যা নি:সন্দেহে একটি আকর্ষনীয় দিক। তবে  কিওয়ে বাংলাদেশ অফিশিয়ালী বাইকটির ফুয়েল ইকোনমি ফিগারের কোন তথ্য প্রকাশ করেনি। তবে 11: 1 কম্প্রেশন রেশিও ও সেইসাথে EFI সিস্টেমের সমন্বয়ে এতে বেশ ভালো রকম ফুয়েল ইকোনমি পাওয়া যেতে পারে।

Keeway RKR165 Specification

SpecificationKeeway RKR165
EngineSingle Cylinder, Four Stroke,

Liquid Cooled, 4-Valve Engine

Displacement164.7cc
Bore x Stroke64.0mm x 51.2mm
Compression Ratio11:1
Maximum Power18.08PS (13.3kW)@9,500RPM
Maximum Torque14.0NM@7,000RPM
Fuel SupplyElectronic Fuel Injection
IgnitionTLI
Starting MethodElectric Start
Clutch TypeWet, Multiple-Disc
LubricationWet Sump, Pressure Splash Lubrication
Transmission6-Speed; 1-N-2-3-4-5-6
Dimension
Frame TypeArch Bar Truck Frame
Dimension (LxWxH)2,050mm x740mm x 1,120mm
Wheelbase1,310mm
Ground Clearance160mm
Saddle Height770mm
Weight (UNLADEN)153kg
Fuel Capacity15 Liters

Wheel, Brake & Suspension

The Suspension

(Front/Rear)

Telescopic Fork, 112mm Stroke

Coil Spring Oil Damped Mono Suspension, 43mm Stroke

Brake system

(Front/Rear)

Front: 260mm Disc

Rear: 220mm Disc

Tire size (Front / Rear)Front: 100/80-17

Rear: 130/70-17

Both Tubeless

Battery12V
HeadlampDouble Pit Headlamp
SpeedometerDigital/Analogue Instrumentation

*All the specifications are subject to change upon company rules, policy, offer & promotion. BikeBD is not liable for the changes.

কিওয়ে আরকেআর১৬৫ ফিচার রিভিউ

সুতরাং, বন্ধুরা, মোটামুটি এই ছিলো নতুন কিওয়ে আরকেআর১৬৫ এর ফিচারগুলোর সংক্ষিপ্ত বিবরণ। মোটরসাইকেলটি দেখতে যথেষ্ট চমৎকার এবং আমাদের বাজারের প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার মতোই ফিচারযুক্ত। তবে দেখা যাক টিকে থাকার লড়াইয়ে মোটরসাইকেলটি কেমন পারফর্ম করে। আজ এটুকুই, ধন্যবাদ সবাইকে।

About Saleh Md. Hassan

it's Saleh, a homebound stranger; sometimes unleashes the inner ascetic to trail like an outlaw.

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*