ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ আসলেই কি টপ স্পীড বৃদ্ধি করে ?

ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ নিয়ে যারা জানেন তাদের মনে এই প্লাগ নিয়ে অনেক প্রশ্ন আছে। ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ আসলেই কি টপ স্পীড, এক্সিলারেশন, মাইলেজ ইত্যাদি বৃদ্ধি করে ? নাকি এই স্পার্ক প্লাগ ইঞ্জিনের ক্ষতি করে? ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ এর ভালো এবং মন্দ দিক, এই সব কিছু নিয়ে আজ আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করবো। আশাকরি এই প্লাগ নিয়ে আপনাদের যায় মনে যেসব প্রশ্ন আছে সেগুলো এখন দূর হয়ে যাবে।

ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ

ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ এর বৈশিষ্ট্য

ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ তার গঠণের কারনেই সাধারণ স্পার্ক প্লাগ থেকে কিছুটা আলাদা। সাধারণ স্পার্ক প্লাগ কিন্তু খারাপ না, তবে ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ এর বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য আছে। এই প্লাগ এর টিপ ইরিডিয়াম শঙ্কর দিয়ে তৈরী করা হয়। ইরিডিয়াম শঙ্কর মেটাল  কপার প্লাগ থেকে অনেক কম ক্ষয় হয়। এর ফলে ইরিডিয়াম প্লাগ আপনি অনেকদিন ব্যবহার করতে পারবেন।

স্পার্ক প্লাগ

ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ এর ফ্লেম কালার পুরাপুরি ব্লু হয় , ফ্লেম থিকনেস একটু বেশি থাকে। ব্লু কালারের ইগ্নিশান ফ্লেম এর ইগ্নাইলিবিটি সবচেয়ে বেস্ট হয়। এর ফলে নরমাল প্লাগ এর চেয়ে অনেক বেশি কুইক এয়ার-ফুয়েল মিক্সচার ইগ্নাইট করে। কপার প্লাগের তৈরি ফ্লেম লেন্থ কম্পারেটিভলি দুর্বল থাকে,গ্যাপ বাড়ালে আরও দুর্বল হয়ে যায়। কিন্তু ইরিডিয়াম প্লাগ এর ফ্লেম খুবই মজবুত হয়। এবার সবার মনে থাকা প্রশ্নগুলোর উত্তর দেয়া যাক, তবে এই উত্তর একটু ভিন্নভাবে দেয়া যাক।

যারা ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার করেছেন এমন কিছু বাইকার ভাইয়ের অভিজ্ঞতার কথা আপনাদের সাথে শেয়ার করা যাক। আর এরপর আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ আসলেই কি টপ স্পীড বৃদ্ধি করে  নাকি করে না?

Bajaj Pulsar 150

একজন বাইকার তার Bajaj Pulsar 150 বাইকটিতে ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার করেন, বাইকটি ৫০,০০০ কি.মি এর বেশি চলেছে। কিন্তু এই প্লাগ ব্যবহারের পর সে যা যা পেয়েছে,

  • সে তার বাইকের ইঞ্জিন থেকে এক্সিলারেশন অনেক ভালো পেয়েছে, তার কাছে মনে হয়েছে বাইকের রেডি পিকাপ সে আগের থেকে কিছুটা ভালো পাচ্ছে।
  • পরবর্তিতে সে তার বাইকের টপ স্পীড চেক করতে হাইওয়েতে যায়, এবং সে বাইকের টপ স্পীড আগের থেকে কিছুটা বেশি পায়।

তার মতে ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ এর এই দুটি বৈশিষ্ট্য তার কাছে বেশ ভালো মনে হয়েছে। একটা কথা বলে রাখি পালসার বাইকে স্পার্ক প্লাগ কিন্তু দুইটি থাকে। যাই হউক প্রতিটা জিনিসের ভালো মন্দ দিক আছে, এই স্পার্ক প্লাগ এর একটা খারাপ দিক সে পেয়েছে,

  • ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ ব্যবহারের পর তার কাছে মনে হয়েছে বাইকের মাইলেজ সে আগের থেকে কম পাচ্ছে কিছুটা।

আরও পড়ুন >> বাজাজের সকল বাইকের বর্তমান দাম

Suzuki Gixxer

বাজাজ পালসার ১৫০ বাইকে ভালো ফল পাওয়ার পর একজন বাইকার তার Suzuki Gixxer বাইকে এই স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার শুরু করে, কিন্তু তার বাইকে এই স্পার্ক প্লাগ এর আচরণ ছিলো সম্পূর্ণ উল্টো। তার বাইকে এই স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার করার ফলে যে যে সমস্যা দেখা দিলো,

  • টপ স্পীড কমে গেলো বাইকের,
  • সাথে বাইকের মাইলেজ ও কমে যেতে শুরু করলো।

এর থেকে বোঝা যাচ্ছে ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ মানেই যে আপনার বাইক থেকে ভালো পারফরম্যান্স পাবেন সেটা কিন্তু না, পুরনো একটা পালসার বাইকে ভালো পারফরম্যান্স আসলেও ১২,০০০ কি.মি চলা এই বাইকটিতে ভালো পারফরম্যান্স আসে নি।

আরও পড়ুন >> সুজুকির সকল বাইকের বর্তমান দাম

Lifan KPR 165R Carburetor

এবার জানা যাক এই সময়ের জনপ্রিয় চাইনিজ স্পোর্টস বাইক Lifan KPR 165R Carburetor বাইকে ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ ব্যবহারের ফলাফল,

  • বাইকার ভাইয়ের মতে বাইকের রেডি পিকাপ আগের চেয়ে কিছুটা বেটার হয়েছে
  • বাইকের টপ স্পীড কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে
  • টপ ইন্ডে বাইকের ভাইব্রেশন কিছুটা কমে যায়
  • মাইলেজ কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে

কিন্তু এতগুলো ভালোর মাঝে একটা খারাপ দিক পাওয়া গেছে, আর সেটা হচ্ছে কয়েকবার বাইকে খারাপ তেল ভরার কারনে একটা সময়ে গিয়ে বাইকের স্পার্ক প্লাগ পুড়ে যায়। এর অর্থ হচ্ছে আপনার বাইকে যদি ইরিডিয়াম স্পার্ক প্লাগ আপনি ব্যবহার করেন তাহলে আপনার বাইকের ফুয়েলের দিকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। যেখান সেখান থেকে বাজে ফুয়েল ব্যবহার করতে পারবেন না।

আরও পড়ুন >> লিফানের সকল বাইকের বর্তমান মূল্য

আপনাদের সামনে ৩ টি ভিন্ন বাইকে এই স্পার্ক প্লাগ ব্যবহারের অভিজ্ঞতা এই জন্য তুলে ধরা হলো যাতে আপনি বুঝতে পারেন আপনার বাইকের জন্য আপনি এই প্লাগ কিনবেন কিনা। তবে আমার পরিচিত যারা এই স্পার্ক প্লাগ ব্যবহার করেছে তাদের অধিকাংশই এই স্পার্ক প্লাগ থেকে বেশ ভালো সাপোর্ট পেয়েছে। তবে এই স্পার্ক প্লাগ যদি আপনি ব্যবহার করেন তাহলে আপনাকে বেশ কিছু দিকে খেয়াল রাখতে হবে।

টপ স্পীড

সতর্কতাঃ

১- বাইক ওয়ার্কশপ গুলাতে গেলে দেখা যায় তারা মেটাল ব্রাশ দিয়ে স্পার্ক প্লাগ পরিষ্কার করে। কিন্তু মেটাল ব্রাশ দিয়ে ক্লিন করলে ইরিডিয়াম প্লাগের ব্যপক ক্ষতি হবে, কারন ইরিডিয়াম প্লাগ একটু সেনসিটিভ। সব সময় চেষ্টা করুন টুথ ব্রাশ দিয়ে এটা পরিষ্কার করতে।

২- আমাদের দেশে ভালো মানের ফুয়েল পাওয়া কিছুটা কষ্টকর, কিন্তু এই প্লাগ ব্যবহার করার সময় অবশ্যই ভালোমানের ফুয়েল ব্যবহার করুন।

৩- বাইকে ব্যবহারের সময় যদি আপনি দেখতে পান আপনার বাইকে খারাপ ইফেক্ট হচ্ছে, তাহলে সাথে সাথে এটি পরিবর্তন করে নিন।

কিছু কিছু সময় বাইকে গতি থাকা প্রয়োজন হয়, কিন্তু সব সময় উচ্চ গতিতে বাইক চালানো ঠিক না। নিয়ন্ত্রিত গতিতে হেলমেট পরে বাইক রাইড করুন।

ধন্যবাদ।

About Ashik Mahmud

ashik.bikebd@gmail.com'

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*