আপনার মোটরযানের নম্বর হবে এখন আপনার পছন্দমতো । জানুন বিস্তারিত

মোটরযানের নম্বর হবে এখন আপনার পছন্দমতো, আমরা অনেকেই জানি বাইরের অনেক দেশে মোটরযানের মালিকেরা তাদের মোটরযানের নম্বর করাতে পারে নিজেদের ইচ্ছে মতো। আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই হয়তো আছেন যারা অনেকবার চেষ্টা করেছেন একটা ভিন্ন নম্বর পাওয়ার জন্য। এমন একটি নম্বর যার প্রতিটি ডিজিট হবে আপনার মনের মতন। কিন্তু আমাদের দেশের নিয়ম এবং আইন অনুযায়ী আমরা এই কাজটি করতে পারতাম না।

আপনার মোটরযানের নম্বর হবে এখন আপনার পছন্দমতো । জানুন বিস্তারিত

দেরীতে হলেও অবশেষে অপেক্ষার প্রহরটা শেষ হলো, এখন  চাইলে আপনার মোটরযানের নম্বর হবে এখন আপনার পছন্দমতো।আজ আমরা কোন ডিজিটে কত ফি লাগবে,প্রচলিত ফি এর থেকে ফি কতগুণ বেশি হবে এই সব কিছু  সম্পর্কে আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচলা করবো।

সরকার এখন আমাদের এই সুযোগটি করে করে দিয়েছে,এখন মোটরযানের নম্বর হবে এখন আপনার পছন্দমতো। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ থেকে ৯ জুন মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। প্রচলিত রেজিস্ট্রেশন ফি’র দুই থেকে সাত গুণ পর্যন্ত অতিরিক্ত ফি দিয়ে পছন্দমতো মোটরযানের নম্বর নেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছে সরকার।

digital plate

৯ জুন প্রকাশিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে রেজিস্ট্রেশন নম্বরের চারটি ডিজিটের দুটি করে ডিজিট একই হলে রেজিস্ট্রেশন ফি প্রচলিত ফি’র দ্বিগুণ হবে
যেমন: ০০২২, ০০৩৩

রেজিস্ট্রেশন নম্বরের চারটি ডিজিট জোড়া জোড়া হলে রেজিস্ট্রেশন ফি প্রচলিত ফি’র তিনগুণ হবে।
যেমন: ২১২১, ২৩২৩ নম্বর

রেজিস্ট্রেশন নম্বরের চারটি ডিজিট একই হলে রেজিস্ট্রেশন ফি প্রচলিত ফি’র চার গুণ হবে।
যেমন: ১১১১, ২২২২ নম্বর

রেজিস্ট্রেশন নম্বরের ৬টি ডিজিট জোড়া জোড়া হলে রেজিস্ট্রেশন ফি হবে প্রচলিত ফি’র পাঁচগুণ।
যেমন: ৩৬-৩৬৩৬, ৪৫-৪৫৪৫

নাম্বার রেজিশট্রেশন

রেজিস্ট্রেশন নম্বরের ৬টি ডিজিট একই হলে রেজিস্ট্রেশন ফি প্রচলিত ফি’র ৬ গুণ হবে।

যেমন : ৫৫-৫৫৫৫, ৬৬-৬৬৬৬ নম্বর

তবে শুধু ৭৭-৭৭৭৭ নম্বরের ক্ষেত্রে ফি হবে প্রচলিত ফি’র ৭ গুণ।

প্রজ্ঞাপনে আরো বলা হয়, ‘সড়ক পরিবহন আইন, ২০১৮’ এর অধীনে বিধিমালা প্রণীত না হওয়া পর্যন্ত এ আইনে ক্ষমতাবলে সরকার মোটরযান রেজিস্ট্রেশনের সময় মোটরকার ও জিপের মালিকদের পছন্দমতো নম্বর দেওয়ার ক্ষেত্রে ফি’র হার নির্ধারণ করে দিয়েছে। অর্থাৎ আপনার মোটরযানের নম্বর হবে এখন আপনার পছন্দমতো।

নিজের যানবাহনে নিজের পছন্দের নম্বর ব্যবহারের ইচ্ছা অনেক বছর ধরে আমাদের অনেকের মাঝে ছিলো। অবশেষে সেই সুযোগটি করে দেয়ায় আমাদের অনেকের ইচ্ছাটা এখন পূরণ হবে।

তথ্য সূত্রঃ কালের কন্ঠ

About Ashik Mahmud

ashik.bikebd@gmail.com'

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*